কত আশা নিয়েই তো বিশ্বকাপটা শুরু করেছিল আর্জেন্টিনা। দলটা ৩৬ ম্যাচ ধরে হারেনি, মাঝে দুটি শিরোপা জিতেছে। লিওনেল স্কালোনির শিষ্যদের সবচেয়ে বড় শক্তি বলা হচ্ছিলো ঐক্যবদ্ধ থাকাকে। কিন্তু সৌদি আরবের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই ২-১ গোলে হেরে গেছে আর্জেন্টিনা। এই ম্যাচের পর ফেভারিট হয়ে বিশ্বকাপ শুরু করা আলবিসেলেস্তেদের জন্য কঠিন হয়ে গেছে গ্রুপ পর্ব পাড় করাও। স্বাভাবিকভাবেই স্তব্ধ হয়ে গেছে পুরো আর্জেন্টিনা। তবে এমন সময়ে দলের নেতা লিওনেল মেসি পিছিয়ে যাননি। তিনি বলছেন, দলের একতা দেখানোর সময় এটাই। মেসি বলেছেন, ‘কোনো অজুহাত নেই। আমাদের এখন সবসময়ের চেয়ে বেশি ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এই দলটা শক্তিশালী আর তারা এটা দেখিয়েছেও। এখন এমন একটা অবস্থা, যার মধ্যে দিয়ে অনেক লম্বা সময় ধরে যাইনি আমরা। এখন আমাদের দেখাতে হবে এটা সত্যিকারের দল। ’ ‘এই হার সবার জন্যই বড় ধাক্কা। আমরা এমন শুরুর প্রত্যাশা করিনি। সবকিছুই কোনো একটা কারণে হয়। আমাদের তৈরি হতে হবে সামনে যা আসছে তার জন্য। জিততে হবে আর নির্ভর করছে আমাদের ওপর। সৌদি আরবের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার শুরুটা মন্দ হয়নি। প্রথমার্ধে একে একে চারবার সৌদি আরবের জালে বল জড়ায় তারা। কিন্তু তিনটিই বাতিল হয়ে যায় অফসাইডে। দ্বিতীয়ার্ধে পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল দিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় সৌদি। শেষ অবধি জয় নিয়েই ছাড়ে মাঠ।