১৬ হাজার টাকার অভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি অনিশ্চিত রাজু’র

১৬ হাজার টাকার অভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারছেন না রাজু (১৮)। রাজু শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার পাইকুড়া গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের ছেলে।

মা ঝিঁয়ের কাজ করে কোন রকমে সংসার চলে রাজুদের। শত বাধাঁ উপেক্ষা করে রাজু ২০১৫ সালে এসএসসি দাখিল পরীক্ষায় জিপিএ ৪.৮৮ এবং এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৪.৫৮ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন।

তিনি এ বছর ত্রিশাল কবি কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় ‘ডি’ ইউনিটে মেধা তালিকায় ৯তম স্থান পেয়েছেন। তার ভর্তির শেষ সময় ১৩ ডিসেম্বর। মা খোদেজা বেগম অন্যের বাড়ীতে ঝিঁয়ের কাজে করে এতোদিন রাজুর পড়ালেখার খরচ যুগিয়েছেন।কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির টাকা যোগাড় না হওয়ায় রাজুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

এ ব্যাপারে রাজু বলেন, মা অনেক কষ্ট করে আমাকে এ পর্যন্ত পড়ালেখার খরচ দিয়েছেন। কিন্তু এখন পড়ালেখার ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় মা’র পক্ষে টাকার যোগান দেওয়া সম্ভব না। আমার অনেক স্বপ্ন ছিল পড়ালেখা শেষ করে মায়ের কষ্ট দূর করবো। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির টাকা যোগাড় না হওয়ায় আমার ভর্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের