You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

সৌদি জোটের হামলায় ১৩৬ বেসামরিক নিহত

ইয়েমেনে গত ১১ দিনে সৌদি জোটের বিমান হামলায় কমপক্ষে ১৩৬ বেসামরিক নিহত হয়েছে। জাতিসংঘের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, দেশটিতে দফায় দফায় বিমান হামলা চালিয়েছে সৌদি জোট। খবর আল জাজিরা।

হাই কমিশনার ফর হিউম্যান রাইটসের কার্যালয়ের মুখপাত্র রবার্ট কোলভিলে মঙ্গলবার গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ডিসেম্বরের ৪ তারিখে ইয়েমেনের সাবেক প্রেসিডেন্ট আলি আবদুল্লাহ সালেহকে হত্যার জবাবে ইয়েমেনে নতুন করে অভিযান শুরু করে সৌদি জোট। এসব হামলায় বেসামরিক হতাহতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

হুথি বিদ্রোহীদের গ্রেনেড ও বন্দুক হামলায় সালেহ নিহত হন। তাকে হত্যার পর হুথিরা প্রকাশ্যে সৌদি জোটের সঙ্গে আলোচনার ইচ্ছা জানায়। প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মানসুর হাদিকে ক্ষমতায় ফিরিয়ে নিতে ২০১৫ সালে থেকে দেশটিতে অভিযান শুরু করে সৌদি জোট।

আরব বিশ্বের সবচেয়ে দরিদ্র এই দেশটিতে সৌদি জোটের বিমান হামলা দুই বছরের বেশি সময় ধরে চলছে। এসব হামলায় এখন পর্যন্ত ১০ হাজারের বেশি বেসামরিক নিহত হয়েছে। জাতিসংঘ সতর্ক করে বলেছে, সেখানকার কয়েক লাখ মানুষ দুর্ভিক্ষে পতিত হবে।

মঙ্গলবার জেনেভা থেকে কোলভিলে বলেন, জাতিসংঘের মানবাধিকার অফিস এটা নিশ্চিত করেছে যে, জোটের বিমান হামলায় ১৩৬ বেসামরিক নিহত এবং আরও ৮৭ জন আহত হয়েছে। রাজধানী সানা এবং উত্তরাঞ্চলীয় আরও তিনটি প্রদেশে এসব হামলা চালানো হয়েছে।

ডিসেম্বরের ৬ থেকে ১৬ তারিখের মধ্যে হুথি নিয়ন্ত্রিত টিভি চ্যানেল, একটি হাসপাতাল, একটি কারাগার, একটি বিয়ের অনুষ্ঠান এবং একটি খামারবাড়িতে এসব হামলা চালানো হয়। হতাহতদের বেশ কয়েকটি শিশুও রয়েছে।

ডিসেম্বরের ১৩ তারিখে একটি কারাগারে হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ৪৫ জন নিহত হয়। ডিসেম্বরের ১০ তারিখে একটি হাসপাতালে বোমা হামলার ঘটনায় সাত বেসামরিক নিহত হয়। এছাড়া একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে হামলার ঘটনায় এক নারী এবং নয় শিশু নিহত হয়েছে। এদিকে, শুক্রবার একটি খামারবাড়িতে বোমা হামলার ঘটনায় ১৪ শিশুসহ ২০ জন নিহত হয়।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!