সালমাদের অনুপ্রেরণা যুবারা

কদিন আগেই বিশ্বজয় করেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দল। দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে ভারতকে হারিয়ে যুব বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছে লাল-সবুজরা। আকবর আলী, তৌহিদ হৃদয়দের হাত ধরে প্রথমবার আইসিসির বৈশ্বিক কোনো টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপজয়ী যুবাদের কাছ থেকে অনুপ্রেরণা নিচ্ছেন সালমরারা। মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভালো শুরুর অপেক্ষায় বাংলাদেশ।

মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক অস্ট্রেলিয়া। ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে ১০ দলের এই টুর্নামেন্ট মাঠে গড়াবে। ‘এ’ গ্রুপে থাকা বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, ভারত, নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলংকা। ২৪ ফেব্রুয়ারি পার্থে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবেন সালমারা। এরপর ২৭ ফেব্রুয়ারি ক্যানবেরায় অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ২৯ ফেব্রুয়ারি তৃতীয় ম্যাচ মেলবোর্নে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। ২ মার্চ শ্রীলংকার বিপক্ষে চতুর্থ ম্যাচ একই ভেন্যুতে। বাংলাদেশের নারীরা বর্তমান এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন। সালমারা অনুপ্রেরণা নিচ্ছেন বিশ্বকাপজয়ী যুব দলের কাছ থেকে। গতকাল ফটোসেশনে অংশ নিয়েছিলেন বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া ১০ দলের অধিনায়ক। সিডনির তারোঙ্গা চিড়িয়াখানায় অধিনায়কদের নিয়ে হয় এই ফটোসেশন। ছবি তোলার পর কথাও বলেছেন অধিনায়করা। বাংলাদেশ নারী দলের অধিনায়ক সালমা খাতুন বলেছেন, ‘আমাদের অনূর্ধ্ব-১৯ দল বিশ্বকাপ জিতেছে। এটা থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চাই। বিশ্বকাপে আমরা একটা দুর্দান্ত শুরুর অপেক্ষায় আছি।’ মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এটি সপ্তম আসর। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। ক্রিকেটের এই মেগা ইভেন্টে সবচেয়ে বেশিবার (৪) শিরোপাও জিতেছে তারা। এবার দেশের মাটিতে কুড়ি ওভারের ক্রিকেটের মহাযজ্ঞ। এবারও শিরোপা জয়ের রেসে অস্ট্রেলিয়াকেই এগিয়ে রাখছেন ক্রিকেটবোদ্ধারা। এ ছাড়া বাংলাদেশের গ্রুপে ভারত ও নিউজিল্যান্ডের মতো শক্তিশালী প্রতিপক্ষ তো রয়েছেই। কন্ডিশনও বড় একটা ফ্যাক্ট। সালমাদের সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জই অপেক্ষা করছে। তবে বাংলাদেশের অধিনায়ক বেশি চাপ নিচ্ছেন না। নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলার লক্ষ্য তাদের। সালমা বলেছেন, ‘এশিয়া কাপ অনেক বড় একটি অভিজ্ঞতা। কিন্তু এখন আমাদের নজর শুধু বিশ্বকাপে। আমরা অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের দিকে এখন ফোকাস করতে চাই।’

মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, পাকিস্তান ও থাইল্যান্ড রয়েছে ‘বি’ গ্রুপে। সিডনিতে অস্ট্রেলিয়া-ভারত ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপের উদ্বোধন হবে। নকআউটপর্ব শেষে চার দল অংশ নেবে সেমিফাইনালে। মেলবোর্নে অনুষ্ঠেয় ৮ মার্চের ফাইনালের মধ্যে দিয়ে পর্দা নামবে ২০২০ সালের মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।