You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

সমতলের আদিবাসী ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের পৃথক মন্ত্রণালয় দাবীতে শেরপুরে মানববন্ধন


সমতলের আদিবাসী ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের জন্য পৃথক মন্ত্রণালয়ের দাবীতে শেরপুরে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। ২০ ফেব্রুয়ারি সোমবার শহরের পৌর টাউন হলের সামনে নাগরিক সংগঠন জনউদ্যেগ এ কর্মসূচী পালন করে। বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন শেষে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে লিখিত একটি স্মারকলিপি জেলা প্রশাসকের নিকট হস্তান্তর করা হয়।
সমতলের আদিবাসী ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের জন্য পৃথক মন্ত্রণালয়ের দাবীতে আয়োজিত এ মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। এসময় অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন জনউদ্যোগ আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ, সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের আহ্বায়ক রাজিয়া সামাদ, উদীচী সভাপতি তপন সারোয়ার, আদিবাসী যুব পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি হরেন্দ্রনাথ সিং, আদিবাসী নেতা সুমন্ত বর্মন, মিঠুন কোচ, মহিলা পরিষদ নেত্রী আইরীন পারভীন, কমিউনিস্ট নেতা সোলায়মান আহমেদ প্রমুখ।
স্মারকলিপিতে বলা হয়, প্রতিনিয়ত ভয়ভীতি, হুমকি, উচ্ছেদ, ধর্ষণ, বিচারহীনতার সংস্কৃতি, শাসকগোষ্ঠির বিমাতাসুলভ আচরনে আদিবাসী ও সংখ্যালঘুরা প্রান্তিক থেকে দেশান্তরি হচ্ছে প্রতিনিয়ত। এক গবেষনায় দেখা গেছে, সমতলের শতকরা ৬০ ভাগ আদিবাসী চরম দারিদ্রহীনতার মধ্যে বসবাস করছে। তাছাড়া দেশের শতকরা নয়ভাগ ধর্মীয় সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠির অবস্থাও এমনই। এজন্য দেশের উন্নয়নের মুলধারায় আদিবাসী ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের সম্পৃক্ত করতে পৃথক মন্ত্রণালয় ও ভুমি কমিশন গঠনের দাবী জানানো হয়।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!