You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

শ্রোতার হৃদয় ছুঁয়েছে শিমুলের “তোমাকে খুঁজি”

সঙ্গীতের প্রতি সবসময় একটু আলাদা টান থাকে সব শ্রেণির মানুষের। আদিকাল থেকেই মানুষ সুরের  মূর্ছনায় ভেসেছে। যুগে যুগে অনেকে অমর হয়ে আছেন নিজের সুর আর সঙ্গীতের জন্য। আধুনিক সময়েও অনেকেই নিজের পুরোটা বিলিয়ে দিতে চান দর্শক ও শ্রোতার মন জয়ের জন্য। তেমনি সুরের মূর্ছনায় সবাইকে বিমোহিত করতে তরুন সংগীত শিল্পী শিমুল আকন্দ সম্প্রতি রিলিজ করেছে “তোমাকে খুঁজি” নামে একটি একক এ্যালবাম। সম্প্রতি তিনি শেরপুর টাইমস ডটকমের মুখোমুখি হয়েছিলেন। তার সাক্ষাতকারটি গ্রহন করেছেন শেরপুর টাইমস ডটকমের সহযোগী প্রতিষ্ঠান শেরপুর টাইমস টিভির প্রতিনিধি শাকিল মুরাদ । সাক্ষাতকারটির চুম্বক অংশ পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

 

শেরপুর টাইমস  : শেরপুর টাইমস ডটকমের পক্ষ থেকে আপনাকে স্বাগতম। কেমন আছেন ?

শিমুল : সকলের দোয়ায় ভালো আছি। শেরপুর টাইমস ডটকমকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি আমাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য।

 

শেরপুর টাইমস : আমরা জেনেছি সম্প্রতি আপনার একটি একক অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে। কেমন লাগছে?

শিমুল : আসলে এটা আমার জন্য বড় অর্জন। একটি নতুন মাইলফলক বলা যেতে পারে। অনেক ভালো লাগছে। ভাষায় বোঝানোর মত না।

 

শেরপুর টাইমস : আপনি শেরপুর জেলার গানের জগতে বেশ সুনামের সাথে এগিয়ে যাচ্ছেন। সংগীতে আপনার এই আগ্রহে কার অবদান বেশি বলে মনে করেন? আর কিভাবে, কার অনুপ্রেরনায় আপনি সংগীতের জগতে  এলেন?

শিমুল : আমি যখন ছোট, আমার কাকা জুয়েল আকন্দর মুখে গান শুনতাম। ভাবতাম, ইস্স আমি যদি এভাবে গাইতে পারতাম! আমিও গুনগুন করতে শুরু করি। এটা দেখে আমার মা ও কাকা দুজনই আমাকে গান গাওয়ার অনুপ্রেরণা দিতেন।

 

শেরপুর টাইমস : “তোমাকে খুঁজি” এর সুরকার কে বা  সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন কে?

শিমুল : সুরকার এবং সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন আর আজিজ টিটো। আমি উনার প্রতি কৃতজ্ঞ। আমাকে সাহস জুগিয়ে সুন্দর একটি সৃষ্টি উপহার দেয়ার জন্য।

 

শেরপুর টাইমস : গানের জগতে আসার কোন ঘটনাকি আপনার মনে পড়ে?

শিমুল : আমি তখন ৪র্থ শ্রেণিতে পড়ি। স্থানীয় একটি এনজিও স্কুলে আমি পড়তাম। সেখানে নিয়ম ছিল প্রতিদিন একজন করে গান গাইতে হবে। একদিন আমার পালা এলো। আমি গান শুরু করলাম, আর সবাই হাসতে শুরু করলো। সেদিন নিজেকে খুব ছোট লাগছিল।

 

শেরপুর টাইমস : গান শিখেছেন কোথায়? আপনার গানের ওস্তাদ কে?

শিমুল : আমি গানের জন্য বিশেষ কোন তালিম নেয়ার সুযোগ পায়নি। শেরপুরের সাহিদ স্যারের কাছে কিছুদিন অনুশীলন করেছি। এখন ঢাকাতে সম্রাট স্যারের কাছে তালিম নিচ্ছি। রেকর্ডিং এর পুরোটা সময় পাশে ছিলেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী রনি চৌধুরী।

 

শেরপুর টাইমস : গানের পাশাপাশি কি করছেন?

শিমুল : আমি ঢাকার আই.এইচ.টি কলেজে ৪র্থ বর্ষে লেখাপড়া করছি।

 

শেরপুর টাইমস : এখন ব্যস্ততা কি নিয়ে?

শিমুল : এখন গান নিয়েই কাজ করছি। ঈদের পর আমার অ্যালবামটির মিউজিক ভিডিও বাজারে আসছে। সেটা নিয়ে কিছু ব্যস্ত সময় পার করছি। এছাড়া এখন কিছু স্টেজ প্রোগ্রাম করছি। এতে কিছুটা পরিচিতিও বাড়ছে।

 

শেরপুর টাইমস : আপনি আসলে কোন ধরনের গান করেন?

শিমুল : আমি মূলত সব ধরনের গানই করি। তবে ক্ল্যাসিক্যাল আর আধুনিক গানের একটা রসায়ন ঘটানোর চেষ্টা করি। সাথে শ্রোতাদের পছন্দমতো গানতো আছেই।

 

শেরপুর টাইমস : গান নিয়ে আপনার ভবিষ্যত পরিকল্পনা কি?

শিমুল : সকলের দোয়ায় আর দর্শক শ্রোতার ভালোবাসায় এগুতে চাই, ভাল একজন সংগীত শিল্পী হতে চাই। দর্শকশ্রোতা ও ভক্তদের অনুপ্রেরনা পেলে আমি সংগীত নিয়ে ভালো কিছু করতে চাই।

 

শেরপুর টাইমস : আপনার নিজের জগৎ সম্পর্কে কিছু বলুন।

শিমুল : আমার বাবা আব্দুল বারিক আকন্দ গত হয়েছেন। মা শিউলী বেগম গৃহিনী। আমরা দুই ভাই, আমি বড়। নিজের জগতে বন্ধুদের দখল খুব বেশি। বন্ধু মহলের সাড়া না পেলে আমি আজকের অবস্থানে আসতে পারতাম না। দিন শেষে বন্ধুরাই এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখায়।

 

শেরপুর টাইমস : আপনার ভক্তদের জন্য কিছু বলুন।

শিমুল : সবার কাছে অনেক ভালোবাসা আর দোয়া চাই। যাতে অনেকদূর এগিয়ে যেতে পারি। আর সবাইকে গানটি শোনার ও শেয়ার করতে অনুরোধ করছি। ঈদের পর আমার গানের মিউজিক ভিডিও দেখার আমন্ত্রণ রইলো। খুব শিঘ্রই আমার গানের ওয়েলকাম টিউন প্রকাশিত হচ্ছে। সবাইকে ওয়েলকাম টিউনটি উপভোগের অনুরোধ রইলো।

 

শেরপুর টাইমস : গান নিয়ে আপনার ইচ্ছে পূরণ হোক, সার্থক হোক গানের জগতে আপনার পদচারণা। শেরপুর টাইমস ডটকম ও শেরপুর টাইমস টিভির পক্ষ থেকে আপনার প্রতি শুভ কামনা ও অনেক ধন্যবাদ।

শিমুল : আমাকে সুযোগ করে দেয়ার জন্য। ভাল থাকবেন। শেরপুর টাইমস ডটকম ও শেরপুর টাইমস টিভিকেও অসংখ্য ধন্যবাদ।

 

শিমুল আকন্দের প্রথম একক অ্যালবাম “তোমাকে খুঁজি” উপভোগ করুন শেরপুর টাইমস টিভিতে। এখানে ক্লিক করুন

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!