শ্রীবরর্দীতে ১৭ মাস যাবত নেই সাব রেজিস্টার

রমেশ সরকার :  দীর্ঘ প্রায় ১৭ মাস যাবত সাব রেজিস্টার শূন্য চলছে শেরপুর জেলার শ্রীবরর্দী সাব রেজিস্টার অফিস। ফলে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে শ্রীবরদীর সাব রেজিস্টারের কার্যালয়।

স্থায়ী ভাবে দায়ীত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা না থাকায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিয়ে চলছে গুরুত্বপূর্ন এ অফিস। এতে করে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে পৌরসভা সহ ১০টি ইউনিয়নের সাধারন জনগণ। প্রায় দুই বছর যাবত কখনো পার্শ্ববর্তী নালিতাবাড়ি উপজেলার সাব রেজিস্টার আবার কখনো ঝিনাইগাতি উপজেলার সাব রেজিস্টার অতিরিক্ত দায়ীত্ব নিয়ে সপ্তাহে দুই দিন রোববার ও সোমবার রেজিস্টার অফিসে কাজ করছেন।

জানাগেছে, ২০১৫ সালের ২৬ জুলাই দায়ীত্ব প্রাপ্ত সাব রেজিস্টার আমিনুর রহমান বদলি হয়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার পর থেকে এখানে দায়ীত্ব নিয়ে আর কোনো সাব রেজিস্টার যোগদান করেন নাই। সেই থেকে শ্রীবরদী সাব রেজিস্টার পদটি শূন্য রয়েছে। শূন্য পদ থাকায় বর্তমানে ঝিনাইগাতি উপজেলা সাব রেজিস্টার আব্দুর রহমান ভুঁইয়া অতিরিক্ত দায়ীত্ব নিয়ে সাব রেজিস্টারের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি সপ্তাহে দুইদিন রবি ও সোমবার অফিস করেন। বাকি তিন দিন দলিল রেজিস্ট্রির কাজ বন্ধ থাকে।

একারণে দুইদিনে এক থেকে দেড় শত দলিল রেজিস্ট্রি হয়। বেশি দলিল রেজিস্ট্রি হওয়াতে সকাল থেকে অনেক রাত পর্যন্ত চলে গুরুত্বপূর্ণ এ অফিস। এতে উপজেলার দুর থেকে আসা জনগন প্রতি নিয়ত বাড়তি ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন । এনিয়ে জমি বিক্রেতা-ক্রেতা, ষ্টাম্প বিক্রেতা ও দলিল লিখক সমিতির কর্মকর্তাদের সাথে কথা হলে তারা বলেন, স্থায়ী ভাবে সাব রেজিস্টার না থাকায় অনেক সময় রাত পর্যন্ত অফিস চলে। এতেকরে সাধারন জনগণের বাড়তি ঝামেলা পোহাতে হয়।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।