You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

শেরপুর-৩ আসনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে মাঠে ছাত্রলীগের সমন্বয়ক কমিটি

শেরপুর-৩ (শ্রীবরদী-ঝিনাইগাতী) আসনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী প্রকৌশলী একেএম ফজলুল হক চাঁনের নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে মাঠে কাজ করছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নির্বাচন পর্যবেক্ষণ ও সমন্বয়ক কমিটি। গত ১১ডিসেম্বর কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত ১১সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়। যা ১৬ডিসেম্বর থেকে শ্রীবরদী ও ঝিনাইগাতী উপজেলায় নৌকার পক্ষে সাধারণ মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন। এছাড়াও প্রতিটি ওয়ার্ড ও ইউনিয়নের ছাত্রলীগ, যুবলীগ এবং আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের সাথে সমন্বয় করে জনসভা, উঠান বৈঠক, পথসভাসহ নানা ধরনের কার্যক্রম চালাচ্ছেন তারা।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী স্বাক্ষরিত শেরপুর-৩ আসনে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ ও সমন্বয়ক কমিটিতে সমন্বয়ক করা হয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য মাহমুদুল হাসান রুবেলকে। সদস্য পদে তুষার আল নূর, মিজানুর রহমান, সজীব হাসান, আতিকুর রহমান, রুবেল হাসান, সিহাব জয়, মেহেদী হাসান, মো. জিহাদ, মুজিবুর রহমান, সাহেল বিন সাদকে রাখা হয়েছে।

শেরপুর-৩ আসনে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ ও সমন্বয়ক কমিটির সমন্বয়ক মাহমুদুল হাসান রুবেল শেরপুর টাইমসকে বলেন, উন্নয়নের প্রতীক নৌকার পক্ষে তরুণ সমাজকে জাগিয়ে তুলতে ছাত্রলীগ এই কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। আমরা যেখানেই যাচ্ছি সেখানে তরুণসহ সাধারণের কাছে তুলে ধরছি গত ১০ বছরে আওয়ামী লীগ সারাদেশে এবং এলাকায় কি কি উন্নয়ন করেছেন। আগামী নির্বাচনে আবারো ক্ষমতায় আসলে দেশের এবং মানুষের জন্য কি করবেন তাও তুলে ধরছি আমরা।

সদস্য তুষার আল নূর বলেন, তরুণ সমাজের কাজকে আরো গতিশীল করতে এবং তারুণ্যের প্রথম ভোট স্বাধীনতার স্বপক্ষে তথা নৌকার জন্য নিশ্চিত করতে তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করতেই ছাত্রলীগের এই সমন্বয়ক কমিটি।

কমিটির আরেক সদস্য আতিকুর রহমান বলেন, তারুণ্যের শক্তি হচ্ছে প্রধান শক্তি। এই তারুণ্যই এনে দিয়েছে দেশের স্বাধীনতা। তাই আগামী নির্বাচনেও তারুণ্যকে টার্গেট করে আওয়ামী লীগ ইশতেহার দিয়েছেন। তাই আগামী নির্বাচনেও তারুণ্যের ভোটে আওয়ামী লীগ আবারো জয়ী হয়ে সরকার গঠন করবে বলে আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস।

সদস্য মুজিবুর রহমান শেরপুর টাইমসকে বলেন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনেও নৌকা জয়ের বিকল্প নেই। সেই বিষয়টি মূলত আমরা সাধারণ ভোটার, বিশেষ করে তরুণদের কাছে তুলে ধরছি। এতে ভোটাররাও আমাদের এই প্রচারণায় একাত্মতা প্রকাশ করে আগামী নির্বাচনে উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির জন্য তারা নৌকার পক্ষেই ভোট দেওয়ার আশ্বাস দিচ্ছেন।

সমন্বয়ক কমিটির অন্যান্য সদস্যরা বলেন, বিএনপি-জামায়াতের দুঃশাসনের সময় একযোগে সারাদেশের প্রতিটি জেলায় বোমা হামলা, জঙ্গিবাদের উত্থান, বাংলাভাই সৃষ্টি, দুর্নীতিতে পর পর পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন হওয়াসহ সকল ধরনের অপকর্ম তুলে ধরা হচ্ছে। এর সাথে আওয়ামীলীগ সরকারের নানা উন্নয়ন কর্মকান্ডগুলো দিনব্যাপী তৃণমূলে তুলে ধরছি।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নির্বাচন পর্যবেক্ষন ও সমন্বয়ক কমিটি বিভাগীয় সমন্বয়ক শামস্ ই নোমান বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) সরেজমিনে পরিদর্শন শেষে শেরপুর-৩ আসনের সমন্বয়ক কমিটির কার্যক্রমের ব্যাপারে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

এ কমিটি শেরপুর-৩ আসনের শ্রীবরদী উপজেলায় ২৫টি ও ঝিনাইগাতী উপজেলায় ২৮টি ঝুঁকিপূর্ণ ভোট কেন্দ্র চিহ্নিত করেছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নির্বাচন পর্যবেক্ষন ও সমন্বয়ক কমিটির দলটি প্রচারণার সময় বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন তরুণ ভোটারদের। কারণ তরুণরাই আগামীর বাংলাদেশ। এ জন্য আওয়ামী লীগের গৌরবজ্জ্বল ইতিহাস-ঐতিহ্যসহ দেশের মানুষের জন্য আওয়ামী লীগের সকল অর্জন তুলে ধরা হচ্ছে নানাভাবে। এতে সাধারণ মানুষ আকৃষ্টও হচ্ছেন। ওয়াদা দিচ্ছেন নৌকায় ভোট দেওয়ার।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!