শেরপুর হানাদার মুক্ত দিবস উপলক্ষে আনন্দ শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, নাটক

১৯৭১ সালের ৭ ডিসেম্বর পাকাহানাদার বাহিনীর হাত থেকে মুক্ত হয় শেরপুর জেলা। এদিন মিত্রবাহিনীর সর্বাধিনায়ক জগজিৎ সিং অরোরা শেরপুর শহীদ দারোগ আলী পৌর পার্ক মাঠে এক বিশাল সভায় শেরপুরকে হানাদার মুক্ত ঘোষণা করেন। এ সময় মুক্ত শেরপুরে প্রথম বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয়।

শেরপুর মুক্ত দিবস উপলক্ষে ৭ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলা প্রশাসনের উদ্যেগে কালেক্টরেট চত্ত্বর থেকে জেলার মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের অংশ গ্রহণে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। শহর প্রদক্ষিণ শেষে শোভাযাত্রাটি দারোগ আলী পৌর পার্কে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার নূরল ইসলাম হিরোর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এটিএম জিয়াউল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আমিনুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা তালাপতুফ হোসেন মঞ্জু, জিন্নত আলী প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। রাতে উদীচির উদ্যোগে মঞ্চ নাটক ইতিহাস কথা কও মঞ্চস্থ হয়। শেষে শেরপুরের তরুণ লেখক আর সাদীর সম্পাদনায় অনলাইন পত্রিকা লোকবার্তার মোড়ক উন্মোচন করেন জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন।

শেরপুর টাইমস/ বা.স

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের