You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

শেরপুর সদরে ২২ বছর পর বিএনপির প্রার্থী! লড়বেন সর্বকনিষ্ঠ প্রিয়াঙ্কা (ভিডিওসহ)

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেরপুর-১ (সদর) আসনে বিএনপির প্রার্থী হয়েছেন শেরপুরের ৩টি সংসদীয় আসনের সর্বকনিষ্ঠ প্রার্থী সানসিলা জেবরিন প্রিয়াঙ্কা। তিনি জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হযরত আলীর মেয়ে। এই আসনে গত ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত বিএনপি থেকে ৪জনের মনোনয়ন পত্র দাখিল করা হলেও জেলা রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক ৩ জনেরই মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। তাই দীর্ঘ ২২ বছর পর বিএনপির প্রার্থী হিসেবে এই আসনে নির্বাচনে লড়বেন হযরত আলীর মেয়ে সানসিলা জেবরিন।

আজ জেলা রিটার্নিং অফিসারের মিডিয়া সেল থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হযরত আলী বাংলাদেশ ব্যাংকের সিআইবি প্রতিবেদনে ঋণ খেলাপী এবং অপর দুই প্রার্থী শফিকুল ইসলাম মাসুদ ও ফজলুল কাদের দলীয় মনোনয়ন না থাকায় বিএনপি থেকে প্রার্থী হতে পারবেন না। এদিকে হযরত আলী কারাগারে থাকায় তফসিল ঘোষণার পর থেকেই মাঠে সরব হয়েছে হযরত আলীর পরিবার ও তার দল বিএনপি। ১৪ টি ইউনিয়নের বিএনপি ও অঙ্গসহযোগী দলের নেতাদের সাথে চলছে নিয়মিত বৈঠক ও আলোচনা।

জোটের রাজনীতির স্বার্থে বিগত চারটি জাতীয় নির্বাচনে শেরপুর-১ আসনটি জামায়াতকে ছেড়ে দিলেও জয়ের মুখ দেখেনি জামায়াত। যে কারণে ‘ধানের শীষ’ প্রতীকে গত ২২ বছরে কোন প্রার্থী দেয়নি বিএনপি। কিন্তু জামায়াত নেতা কামারুজ্জামানের মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসি কার্যকরের পর সদর আসনে নতুন করে সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু করে বিএনপি। জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হযরত আলী সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদার করলেও ঋণ খেলাপি থাকায় তার প্রার্থীতা বাতিল হয়ে যায়।

বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্রের চূড়ান্ত চিঠি পাওয়ার আগে এই আসনে বেশ কয়েকজন প্রার্থীর নাম শোনা গেলেও সর্বশেষ এই আসনে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের ৪বারের এমপি ও হেভিওয়েট প্রার্থী হুইপ আতিউর রহমান আতিকের বিপক্ষে লড়বেন হযরত আলীর মেয়ে সানসিলা জেবরিন। তিনি পেশায় ডাক্তার এবং রাজধানীর ধানমন্ডিতে আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিক্যাল কলেজে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের প্রভাষকের দায়িত্ব পালন করছেন।

শেরপুর-১ (সদর) আসনে প্রার্থীতা বিষয়ে সানসিলা জেবরিন একান্ত সাক্ষাতকারে শেরপুর টাইমসকে বলেন, দীর্ঘ সময় পর এই আসনে বিএনপি থেকে প্রার্থী দেয়া হয়েছে। এটা অনেক আনন্দের ব্যপার। এছাড়া এই আসনে ধানের শীষের জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। এদিকে এই আসনে আওয়ামীলীগের একজন হেভিওয়ট প্রার্থী রয়েছেন। উনি শ্রদ্ধার একজন মানুষ, উনার কাছে শেখার অনেক কিছু আছে। নিজেকে অনেক লাকি মনে করছি, কারণ সর্বকনিষ্ঠ একজন প্রার্থী হিসেবে উনার বিপক্ষে প্রতিযোগীতা করবো এবং আমি মনে করি রাজনীতিতে হারজিত থাকবেই। যদি অবাধ, সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হয় ধানের শীষের জয় হবেই ইনশাআল্লাহ।

ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে জয়ের লক্ষে ইতোমধ্যে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে যোগাযোগ শুরু করেছেন বিএনপির নতুন মুখ সানসিলা জেবরিন। সর্বকনিষ্ঠ প্রার্থী হিসেবে তিনি শেরপুর-১ সদর আসনে আওয়ামীলীগের ৪ বারের এমপি হুইপ আতিউর রহমান আতিক, জাতীয় পার্টির ইলিয়াস উদ্দিন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের জহির রায়হান, ইসলামী আন্দেলনের মতিউর রহমান, কমিউনিস্ট পার্টির আফিল শেখের বিপক্ষে নির্বাচনে লড়বেন।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!