You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

শেরপুর নাঁকুগাও-ঢালু সীমান্ত থেকে গোয়াহাটি বাস সার্ভিস চালু

শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ি উপজেলার নাঁকুগাও ইমিগ্রেশন পয়েন্টের ভারতীয় ঢালু ছইপানি ইমিগ্রেশন পয়েন্ট থেকে ভারতের আসাম রাজ্যের রাজধানী গোয়াহাটিতে বাস সার্ভিস চালু হযেছে। সীমান্তের একটি সূত্র তথ্যটি নিশ্চিত করেছে।

সূত্র মতে, শেরপুরের নাঁকুগাও ইমিগ্রেশন চেক পয়েন্ট দিয়ে সম্প্রতি ভারতের আসামের গেয়াহাটি, মেঘালয়ের শিলং, পশ্চিম বঙ্গের দার্জিলিং, নেপাল ও ভুটানসহ বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে সহজতর যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে উঠেছে। ফলে এ সীমান্ত দিয়ে দিন দিন বাড়ছে বাংলাদেশ থেকে ভারতে ভ্রমনকারীদের সংখ্যা।

এরই ফলশ্রুতিতে গত ১১ নভেম্বর রোববার থেকে এক দিন পর পর ভারতের মেঘালয় রাজ্যের ঢালু ছইপানি থেকে বিকেল সাড়ে ৫ টায় গৌয়াহাটির উদ্দ্যেশে একটি করে বাস ছেড়ে গিয়ে ভোর রাত ৩ টার মধ্যে পৌছাবে। অপরদিক থেকে একই নিয়মে গৌয়াহাটি বাসস্ট্যান্ড থেকে ওই বাসটি সন্ধ্যা ৬ টায় ছেড়ে এসে ঢালু ছইপানিতে পৌছেবে সকাল ৬ টার মধ্যে। যাতে ভ্রমনকারীরা সকালে ফ্রেস হয়ে সকাল ৮ টার মধ্যে সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশে আসতে পারবে। ঢালু-গোয়াহাটি এ সার্ভিসের বাস ভাড়া ধরা হয়েছে ভারতীয় রুপীতে ৩৫০ টাকা।

উল্লেখ্য যে, এরআগে নাঁকুগাও-ঢালু সীমান্ত থেকে প্রায় ৫ কিলো মিটার দুরে বারাঙ্গাপাড়া বাজার থেকে কেবলমাত্র তুরা শহরের যাতায়াতের হাতে গোনা কয়েকটি বাস ও মাইক্রোবাস চালু ছিল। এরপর তুরাতে গিয়ে আসামের গৌয়াহাটি, পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং ও মেঘালয়ের শিলংসহ অন্যান্য স্থানে যাতাযাতের জন্য সিমিত আকারে কয়েকটা বাস সার্ভিস পাওয়া যায়।

তুরা থেকে ভারতের যে কোন স্থানের যোগাযোগ ব্যবস্থা খুবই উন্নত হলেও তুরা-ঢালু রাস্তাটা খুবই বেহাল ছিল। তবে সম্প্রতি তুরা-ঢালু সড়কটি উন্নত ও প্রসস্তকরণের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। স্থানীয়দের ধারনা আগামী ৩ থেকে ৪ মাসের মধ্যে তুরা-ঢালুর এই ৫০ কিলো মিটার দুরত্বের সড়কটির সংস্কার কাজ শেষ হবে।

দুইদেশের সীমান্তের মানুষ আশা করছে ভারতীয় অংশের সড়কটির উন্নয়ন কাজ শেষ হলেই ঢালু সীমান্ত থেকে ভারতের বিভিন্ন স্থানের বাস সার্ভিস চালু হতে পারে। এছাড়া তুরা শহর থেকে প্রায় ২০ কিলো মিটার অদুরে নির্মিত হচ্ছে অভ্যন্তারিন বিমান বন্দর। বিমান বন্দরটি চালু হলে ওই পথে ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে যোগাযোগ ব্যবস্থারও ব্যপক উন্নয়ন সাধন হবে। এতে করে ভারত-বাংলাদেশের বিশেষ করে বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের ভ্রমনকারীদের ভারত-বাংলাদেশ ভ্রমনে সহজ হয়ে উঠবে।

বাসের অগ্রিম টিকিট অথবা বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করা যাবে গৌতম, মেবাইল : +৯১৮১১৯৯৭৫৫৯৭ নাম্বারে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!