You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

শেরপুর জেলা ব্র্যান্ডিং এর জন্য ব্র্যান্ড বুকে ছবি আহবান

পর্যটন, পণ্য ও উল্লেখযোগ্য উদ্যোগ এই তিনটি ক্ষেত্রের ওপর গুরুত্ব দিয়ে সরকার বিশ্বের কাছে দেশের প্রতিটি জেলাকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরার কাজ শুরু করেছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আওতাধীন এক্সেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) কর্মসূচি বিশ্বের সামনে প্রতিটি জেলার সম্ভাবনাসমূহ বিশেষ করে পর্যটনকে তুলে ধরার প্রয়াসে এই উদ্যোগ হাতে নিয়েছে। ইতোমধ্যে দেশের প্রতিটি জেলাতে ঐজেলার নির্দিষ্ট বিষয়ে ব্র্যান্ডিং এর কাজ শুরু হয়েছে। করা হয়েছে জেলা ব্র্যান্ডিং কমিটি। তারই ধারাবাহিকতায় ‍”পর্যটনের আনন্দে, তুলসীমালার সুগন্ধে-শেরপুর” এই স্লোগানে শেরপুর জেলা ব্র্যান্ডিং করার কাজ শুরু করেছে শেরপুর জেলা প্রশাসন।

শেরপুরের স্থানীয় সরকারের উপ পরিচালক (উপ সচিব) এটিএম জিয়াউল ইসলাম শেরপুর টাইমসকে বলেন, ‘দেশের পাশাপাশি সবগুলো জেলার উন্নয়নের লক্ষ্যে আমরা বিশ্বের সামনে একটি জেলার সবকিছু তুলে ধরতে চাই। বাংলাদেশের প্রতিটি জেলারই পর্যটন এলাকায় বিশেষ পণ্য অথবা খাদ্য এবং বিশেষ জনকল্যাণমূলক উদ্যোগের ন্যায় কিছু বিশেষত্ব রয়েছে। তেমনি শেরপুর জেলারও রয়েছে পর্যটন ও বিশেষ খাদ্য হিসেবে তুলসীমালা চাল। তাই আমরা এই দুটোর মাধ্যমে শেরপুরকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে চাই।”

শেরপুর জেলার ব্রান্ডিং উপকরণ, লোগো ও ট্যাগলাইন প্রকাশের পাশাপাশি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের তত্বাবধানে ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় জেলা ব্র্যান্ডিং এর ব্র্যান্ড বুক প্রণয়নের কাজ শুরু হয়েছে। এই বইয়ে জেলার পরিচিতি, ঐতিহ্য, ঐতিহাসিক নিদর্শন, পুরোনো স্থাপনা, প্রতিষ্ঠানের ছবি ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা থাকবে। তাই আগামী ৭ নভেম্বরের মধ্যে অাপনার হাতে তোলা (মোবাইল/ ক্যামেরা) যেকোন ছবি (অবশ্যই শেরপুর জেলাকে উপস্থাপন করতে হবে) পাঠানোর আহবান করেছে জেলা প্রশাসন। নিয়ম মোতাবেক আপনার ছবি বাছাই হলে তা স্থান পাবে শেরপুর জেলাকে ব্র্যান্ডিং করতে প্রস্তুত ব্র্যান্ড বুকে।
ছবি পাঠানোর নিয়ম :
১. ছবি অবশ্যই ১৯২০*১০৮০ রেজুলেশনে হতে হবে।
২. ছবির বিষয় অবশ্যই স্পষ্ট বোঝা যেতে হবে। যাতে যেকেউ ছবি দেখলেই ছবির বিষয় সম্পর্কে বুঝতে পারে।
৩. ছবি ziaatm15307@gmail.com মেইলে বা সরাসরি অফিসে এসে দিয়ে যেতে হবে। তার আগে “ছবিমেলা শেরপুর” নামে ফেসবুক গ্রুপে পোষ্ট দিতে হবে। কর্তৃপক্ষ ছবিটির বিষয় সম্পর্কে অবগত হয়ে আপনাকে মেইল করবে।

৪. ছবি পাঠানো শেষ তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৭ ইং।
৫. ছবি বাছাই হলে ব্র্যান্ড বুকে প্রকাশ হলে, এর স্বত্বাধিকার আপনার হলেও ছবির পাশে আপনার নাম প্রকাশ নাও হতে পারে।

এটুআইয়ের তথ্য মতে, বিভাগীয় কমিশনারদের তত্ত্বাবধানে সকল জেলা প্রশাসক ও লোকদের অংশগ্রহণে ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে একটি উন্নত দেশে পরিণত করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে এটুআই। এই উদ্যোগের বাস্তবায়নে ব্রান্ডিং উপকরণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, সংস্থা ও সংগঠনগুলোকে এই কর্মসূচির সঙ্গে সম্পৃক্ত করা হয়েছে। এটুআই ইতোমধ্যে সকল জেলার ব্রান্ডিং উপকরণ, লোগো ও ট্যাগলাইন চিহ্নিত করা হয়েছে। প্রতিটি জেলাই নিজ নিজ ব্রান্ড-বুক প্রস্তুত করছে। ছয়টি বই ইতোমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে এবং ১০টি বই প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে।’

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!