শেরপুরে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী বারুনী স্নান অনুষ্ঠিত

শেরপুরের ঐতিহ্যবাহী গড়জড়িপার কালীদহ সাগরে ১৫ মার্চ বৃহস্পতিবার ভোরে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বারুনী স্নান অনুষ্ঠিত হয়েছে। মধুকৃষ্ণ ত্রয়োদশী তিথিতে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে বিপুল সংখ্যক সনাতন ধর্মাবলম্বী বৈদিকমন্ত্র উচ্চারণসহ সাগরের পূণ্য সলিলে অবগাহন করেন। এ সময় পূণ্যার্থীগণ পূর্ব পুরুষের আত্মার শান্তির জন্য অর্পন করেন।
স্নানার্থীদের বিশ্বাস এ পূণ্য সলিলে অবগাহন করলে মনের সকল কুটিলতা, সংকীর্ণতা ও পাপমোচন হয়। স্নান শেষে পূণ্যার্থীগণ সাগরপাড়ে অনুষ্ঠিত গঙ্গাপুজা ও সংকীর্তন অনুষ্ঠিত হয়। এতে শত শত ভক্তকুল ও পূণ্যার্থীরা অংশ নেয়।
স্থানীয় পূজারীরা জানান, প্রায় দেড় শ বছর আগে কোচ সামন্ত আমল থেকে ঐতিহ্যবাহী গড়জড়িপা মাটির দুর্গ সংলগ্ন কালীদহ সাগরে বারুনী স্নান অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।
কিন্তু বর্তমানে ওই কালীদহ সাগর শুকিয়ে যাওয়ায় এর জৌলুস কমে গেছে। এ ছাড়া পূর্বে এখানে ১৫ দিনব্যাপী মেলা বসতো। সে মেলাও এখন আর হয় না। তবে এখন স্নানের দিন ভোর থেকে সকাল ১২টা পর্যন্ত চলে এ মেলা। মেলায় দেশীয় হস্তশিল্প, মাটির খেলনা, বাঁশ-বেতের তৈজসপত্র, মুখরোচক খাবারের দোকান নিয়ে পশারীরা ভিড় জমায়। এবার মেলায় উল্লেখযোগ্য পূণ্যার্থীর আগমন ঘটে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের