You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

শেরপুরে স্বামী হত্যার দায়ে স্ত্রীর যাবজ্জীবন

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ঘুমন্ত অবস্থায় স্বামী সৈয়দুর রহমান ওরফে ফজু মিয়াকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে আছমা আক্তার ওরফে আছমা (১৯) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত।

২১ মার্চ মঙ্গলবার দুপুরে শেরপুরে অতিরক্তি জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ মোছলেহ উদ্দিন এ রায় দেন।

সাজাপ্রাপ্ত আছমা আক্তার ওরফে আছমা ঝিনাইগাতী উপজেলার রামেরকুড়া গ্রামের সৈয়দুর রহমান ওরফে ফজু মিয়ার দ্বিতীয় স্ত্রী।
আদালতের অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট ইমাম হোসেন ঠান্ডু মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানান, শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার রামেরকুড় গ্রামের সৈয়দুর রহমান ওরফে ফজু মিয়াকে ২০১৪ সালের ২৯ জুলাই রাতে নিজ বসতঘরে ঘুমিয়ে চিলেন।

পারিবারিক কলহের জের ধরে ঘুমন্ত অবস্থায় স্ত্রী আছমা আক্তার ওরফে আছমা তাকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। পরে স্থানীয় প্রতবেশীরা স্বামী হন্তারক আছমা আটক করে পুলিশে দেয়। এ ঘটনায় নিহতের প্রথম পক্ষের ছেলে হারুন রশিদ বাদী হয়ে ঝিনাইগাতী থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ২০১৪ সালের ২২ সেপ্টেম্বর স্ত্রী আছমা আক্তার ওরফে আছমাকে একমাত্র আসামী করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে মঙ্গলবার আসামিদের উপস্থিতিতে আদালত আছমা আক্তার ওরফে আছমাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ঘোষণা করে। এছাড়াও তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

মামলাটি আসামীপক্ষে স্টেট ডিফেন্স হিসেবে অ্যাডভোকেট আবুজর গাফ্ফারি পরিচালনা করেন।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!