You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

শেরপুরে শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় বিএনপি নেতার শেষ বিদায়

শেরপুরে হাজার হাজার রাজনৈতিক নেতা-কর্মী, সমর্থক আর ভক্ত-অনুরাগীর শেষ  শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় বিদায় নিলেন শেরপুরের বিশিষ্ট রাজনীতিক, সামাজিক সংগঠক, শিক্ষানুরাগী, জেলা বিএনপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক আশীষ। ১২ মার্চ রবিবার বেলা আড়াইটায় শহরের গৌরীপুনস্থ মৈত্রীবাড়ি মাঠে প্রায় ২০ হাজার মানুষের অংশগ্রহণে স্মরণকালের ঐতিহাসিক নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

পরে স্থানীয় পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়। নামাজে জানাযায় জাতীয় সংসদের হুইপ আতিউর রহমান আতিক, সাবেক স্বাস্থ্য উপ-মন্ত্রী সিরাজুল হক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর রুমান, জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি মাহমুদুল হক রুবেল, সাধারণ সম্পাদক মোঃ হযরত আলী, জামালপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শাহ মোঃ ওয়ারেছ আলী মামুন, শেরপুর পৌরসভার মেয়র গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ছানুয়ার হোসেন ছানু, ঝিনাইগাতী উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম বাদশা, নকলা উপজেলা চেয়ারম্যান মাহবুব আলী চৌধুরী, নালিতাবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম মোখলেসুর রহমান রিপন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ইলিয়াস উদ্দিন, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান মোহন ও বিএনপি নেতা প্রভাষক মামুনুর রশিদ পলাশসহ বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তি মরহুমের স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন।

জানাযায় ইমামতি করেন যোগিনীমুড়া খানকায়ে সিদ্দিকিয়া পীর সাহেব মাওলানা আবু রাশেদ মোহাম্মদ বাকের।
এর আগে রাত ২টার দিকে রাজধানী ঢাকা থেকে আব্দুর রাজ্জাক আশীষের মরদেহ শহরের সজবরখিলাস্থ বাসায় পৌঁছে। গভীর রাতেও দলীয় নেতা-কর্মীসহ সাধারণ মানুষজন তাকে একনজর দেখার জন্য ওই বাসার দিকে ছুটতে থাকেন। একইভাবে দেখতে সকালে ওই বাসায় মানুষের ঢল নামে। অসংখ্য মানুষের আবেগ আর কান্নায় পরিবেশ ভারি হয়ে উঠে।
আব্দুর রাজ্জাক আশীষের মৃত্যুতে শহরের খোয়ারপাড় এলাকায় সকাল থেকে দাফনের পূর্ব পর্যন্ত দোকানপাট বন্ধ রেখে শোক পালন করে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। এছাড়া তার প্রতিষ্ঠিত উত্তরা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় বন্ধ রেখে শোক পালন করে শিক্ষক-শিক্ষাথীরা।
উল্লেখ্য, আব্দুর রাজ্জাক আশীষ শুক্রবার বিকেলে শহরের সজবরখিলা বাসায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পড়লে দ্রুত তাকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানী ঢাকার বারডেম হাসপাতালে রেফার্ড করা হয় এবং সেখানেও অবস্থার অবনতি হলে শনিবার সকাল ৮টায় আইসিইউতে থাকার দীর্ঘ ১০ ঘন্টার মাথায় সন্ধ্যা পৌণে ৬ টার দিকে তিনি ইন্তেকাল করেন।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!