শেরপুরে ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝির বিদায় সংবর্ধনা

শেরপুরে ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝিকে বিদায় সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) বিকেলে পুলিশ লাইন্স মাঠে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। শেরপুর জেলা পুলিশ বিভাগ এ সংবর্ধনার আয়োজন করে।

পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির রুমান, শ্রীবরদী থানার ওসি রহুল আমিন তালুকদার, শেরপুর প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক মেরাজ উদ্দিন, সাংবাদিক হাকিম বাবুল, জিএইচ হান্নান, কাকন রেজা, মাসুদ হাসান বাদল প্রমূখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সমকাল প্রতিনিধি দেবাশীষ ভট্টাচার্য, জনকণ্ঠের অ্যাড. রফিকুল ইসলাম আধার, প্রথম আলোর দেবাশীষ সাহা রায়, যুগান্তরের আব্দুর রহিম বাদল, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও আমাদের সময় প্রতিনিধি সাবিহা জামান শাপলা, এসএ টিভির প্রভাষক মহিউদ্দিন সোহেল প্রমূখ।

 

বদলী জনিত এ বিদায় সংবর্ধনায় সভাপতির বক্তব্যে পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম বলেন, ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি স্যার একজন প্রফেশনাল জনবান্ধব পুলিশ কর্মকর্তা। তিনি পুলিশের কাজকে মানবিকতার সাথে মিশিয়ে অসাধারন করে তুলেছেন। তাঁর কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি। ভবিষ্যতে এ শিক্ষা কাজে লাগবে।

সংবর্ধিত অতিথি ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি বলেন, দীর্ঘ প্রায় ৩০ বছরের কর্মক্ষেত্রে আমি কখনো কারো সাথে কোনদিন কটু কথা বলিনি, খারাপ আচরণ কিংবা গালি দেইনি। আমি অহেতুক কারো বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়েছি, নির্যাতন করেছি, দলমত নির্বিশেষে কেউ একথা কেউ বলতে পারবে না। তিনি বলেন, মানুষকে বুঝিয়ে, মোটিভেট করে অনেক কিছু করা যায়। এসময় তিনি তাঁর কথায়, আচরণে কেউ যদি দুঃখ পেয়ে থাকেন সেজন্য সকলকে নিজগুণে ক্ষমা করার জন্য অনুরোধ জানান।

পরে শেরপুর জেলা পুলিশ বিভাগের পক্ষ থেকে ডিআইজির হাতে ফুলের তোড়া তুলে দেন পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম। এছাড়া ৫ থানার ওসি, প্রেসক্লাব, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের পক্ষ থেকেও তাঁকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।