শেরপুরে প্রথমবারের মতো হয়ে গেলো ‘প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক উৎসব

প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে মূলস্রোতে মিশে একসাথে দেশের উন্নয়নে কাজে উদ্বুদ্ধ করতে প্রথমবারের মতো শেরপুরে হয়ে গেলো ‘প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক উৎসব’। বৈচিত্র বহুত্বের ঐক্যতানে, এসো মিলি একপ্রাণে- এ স্লোগানে বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) রাতে শহরের নবীনগর হাজীর মোড়ে এ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। নাগরিক সংগঠন জনউদ্যোগ এ ভিন্নধর্মী উৎসবের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানের শুরুতে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জনউদ্যোগ শেরপুরের আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ। সাংস্কৃতিক উৎসবের উদ্বোধন করেন শেরপুর সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিক।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শেরপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরোজ আল মামুন, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুল ইসলাম হিরো, জেলা আ’লীগের সাংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক আনিসুর রহমান, কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, শেরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শরিফুর রহমান, সাধারন সম্পাদক মেরাজ উদ্দিন প্রমূখ।

নাগরিক সংগঠন জনউদ্যোগ শেরপুরের সদস্য সচিব হাকিম বাবুল জানান, অনুষ্ঠানে জেলার হিন্দু, গারো, হাজং, কোচ, হদি, বানাই, হিজড়া (তৃতীয় লিঙ্গ)সহ বিভিন্ন প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর শিল্পীরা তাদের নিজস্ব জীবনধারা ও সংস্কৃতির উপর গান, নাচ ও নাটিকা প্রদর্শন করা হয়। পরে উদীচি শেরপুরের অংশগ্রহণে নাটক ‘জনঐক্যের মহাপ্রয়াণ’ মঞ্চস্থ হয়।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।