শেরপুরে নকলায় ছুরিকাঘাতে ঝাল-মুড়ি বিক্রেতা নিহত

শেরপুরে নকলা উপজেলার উরফা ইউনিয়নের উরফা কান্দাপাড়া এলাকায় ছুরিকাঘাতে এক ঝাল-মুড়ি বিক্রেতা নিহত হয়েছে। নিহত মিয়া হোসেন (৫২) ওই গ্রামের মৃত তাহের উদ্দিনের ছেলে। শুক্রবার মধ্যরাতে পুলিশ ওই জাল-মুড়ি বিক্রেতার বসতঘর থেকে লাশ উদ্ধার করেন। ২৬ আগস্ট শনিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ শেরপুর জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খাঁন আব্দুল হালিম জানান, লাশটি উদ্ধারের সময় গলা কাটা এবং বুকে ছুরির আঘাত পাওয়া গেছে। তাতে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ছুরিকাঘাতে তাকে খুন করা হতে পারে। তবে ময়নাতদন্ত শেষে বিষয়টি আরো স্পষ্ট হবে।

উরফা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রেজাউল হক হীরা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত মিয়া হোসেন প্রায় ১৩ বছর আগে স্বপরিবারে রাজধানী ঢাকায় চলে যান। সেখানে থাকা অবস্থায় তিনি তার স্ত্রীকে হত্যার মামলায় প্রায় এক যুগ কারাবরণ শেষে গত বছর জামিনে বাড়িতে এসে ঝাল-মুড়ির ব্যবসা শুরু করেন।

ওসি খাঁন আব্দুল হালিম জানান, নিহতের চার ছেলে ঢাকা থেকে বাড়ী আসছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। শেরপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আমিনুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।