শেরপুরে চাকুরী দেয়ার নামে প্রতারণা ।। বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

শেরপুরে চাকুরী দেয়ার নামে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে জেলার নকলা উপজেলার প্রতারিত প্রায় ৩ শতাধিক বেকার যুবক যুবতী। ২৮ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে নকলা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে এ মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয় ।

মানবন্ধন থেকে প্রতারিতরা জানান, পল্লী ভিশন বাংলাদেশ লিমিটেড এর এলাকা ভিত্তিক শিশু স্কুল গঠন করে চাকরী দেয়ার নামে একই উপজেলার গড়েরগাও এলাকার সেকান্দর আলী ফরাজি ওরফে সেকান্দর মাস্টার সুপারভাইজার ও বিভিন্ন স্কুল এর শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার নাম করে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নেয়।

পরে তাদের চাকুরী না দিয়ে টালবাহানা শুরু করে এক পর্যায়ে গা ঢাকা দেয়। প্রতারিতরা মানব বন্ধন শেষে ওই সেকান্দর মাস্টারের বিচারের দাবীতে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে স্মারক লিপি প্রদান করে।

তবে এব্যাপারে অভিযুক্ত সেকান্দর মাস্টারের কাছে মোবাইলে জানতে চাইলে তিনি জানান, জৈনিক আক্তার ও বাতেন নামে দুই ব্যাক্তি ওইসব টাকা উত্তোলন করেছে ,আমি কারও কাছে টাকা নেয়নি তারা বাচাঁর জন্য আমাকে জড়িত করে এসব ষড়যন্ত্র করছে ।

অন্যদিকে পল্লী ভিশন বাংলাদেশ লিমিটেডের শেরপুর জেলা কর্ডিনেটর রিয়াজুল ইসলামের কাছে কয়েক দফায় ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

 

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের