শেরপুরে ওএমএস দোকানগুলোতে ভীড় : বাজারে কমতে শুরু করেছে চালের দাম

শেরপুর খাদ্য অধিদপ্তরের খোলা বাজারে চাল বিক্রীর ওএমএস দোকানগুলোতে চাল কিনতে আসা মানুষের ভীড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ত্রিশ টাকা কেজি দরের ওএমএস চালুর ফলে স্থানীয় বাজারে চালের দাম কমতে শুরু করেছে।

২০ সেপ্টেম্বর বুধবার সকালে জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন ও জেলা খ্যাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. মাহবুবুর রহমান শহরের বিভিন্ন ওএমএস দোকান পরিদর্শন করেন।

শহরের নবীনগর, চাপাতলি, পুরাতন গরুহাটি ও বাগরাকসা এলাকার চারটি ওএমএস দোকান পরিদর্শন করে দেখা যায়, প্রতিটি দোকানেই নারী-পুরুষরা লাইনে দাঁড়িয়ে চাল কিনছেন। ৩০ টাকা কেজি দরে প্রত্যেকে ৫ কেজি করে চাল কেনার সুযোগ পাচ্ছেন। এবার ওএমএসে আতপ চাল দেওয়া হলেও শেরপুরে সাধারন মানুষের এনিয়ে তেমন কোন অভিযোগ নেই।

জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন জানান, শহরের ৫টি ওএমএস ডিলারের মাধ্যমে প্রতিদিন ১ টন করে মাসে ১২০ মে. টন এবং ৫ উপজেলায় ৪৫০ মে.টন চাল বিক্রয় করা হচ্ছে। এতে চালের বাজার খুব শীঘ্রই নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে তিনি আশাবদ ব্যক্ত করেন।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের