শেরপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার হাতিবান্ধা ইউপি চেয়ারম্যান নূরল আমীন দোলা তার বিরুদ্ধে আনিত নানা অভিযোগের প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন। তিনি আজ মঙ্গলবার দুপুরে তার কয়রোডস্থ অস্থায়ী কার্যালয়ে এ সাংবাদিক সম্মেলন করেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমি চরম ভাবে নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি, চলাচলের রাস্তা না থাকায় এবং আমার পরিষদের আক্তার মেম্বার, হানিফ মেম্বার সহ কতিপয় সন্ত্রাসীদের নানা হুমকি ধামকির কারণে আমার পরিষদের কার্যালয়ে যেতে পারছিনা । অথচ বর্তমান সরকার দলের প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশগ্রহন করে জনগনের মন জয় করে আমি নির্বাচিত হয়েছি। আমার জনপ্রিয়তায় হিংসা করে কিছু সংখক লোক চক্রান্ত করে গত ১৫ মার্চ ঝিনাইগাতীর তেতুলতলা বাজারে আমার বিরুদ্ধে উদ্দেশ্য মূলক ভাবে ১৮ টি অভিযোগ এনে মানব বন্ধন ও কুশ পুত্তলিকা দাহ করেছে যা আমার পারিবারিক ঐতিহ্য কে হরণ করেছে ।

আমি এ সংবাদিক সম্মেলনে তার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আমি নির্বাচিত হয়ে সরকারী সকল সুবিধা বিতরণে শতভাগ সচ্ছতা নিশ্চিত করেছি ।

এছাড়াও চৌকিদার,দফাদার, তথ্য সেবা উদ্যোগতা নিয়োগে যে উৎকোচ গ্রহনের কথা বলা হয়েছে তা মিথ্যা বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রনদিত। তিনি আরো বলেন, আামার বড় ভাই এই ইউনিয়নে দুইবার নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন আর সেই সুবাদে সরকারী চাকরী থেকে অবসর গ্রহনের পর জন সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করেছি ।

কিন্তু বর্তমানে একটি কুচক্রি মহলের হিংসায় পড়ে আমি বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালিত করতে বাধা গ্রস্ত হচ্ছি। আপনি যাদের কারণে  নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন তাদের বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা নিয়েছেন কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে ওই ইউনিয়ন পরিষদের  সচিব খোরশেদ আলম সহ পাচঁ মেম্বার  এবং জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার কর্মরত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের