শেরপুরে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বঞ্চিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

শেরপুর সদর উপজেলার ভাতশালা ইউনিয়ন পরিষেদের উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন বঞ্চিত মো: সুরুজ্জামান নামে এক চেয়ারম্যান প্রার্থী সংবাদ সম্মেলন করেছেন। তিনি আজ বিকেলে শেরপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন করেন।

মো. সুরুজ্জামান, সদর উপজেলার ভাতশালা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও স্থানীয় মধ্যবয়ড়া আতিউর রহমান মডেল আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষের দ্বায়িত্ব পালন করছেন। সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় বর্তমানে এ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদটি শূন্য থাকায় তিনি আসন্ন ওই ইউনিয়ন পরিষদ উপ নির্বাচনের বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ থেকে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশি ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারম্যান প্রার্থী সুরুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, দীর্ঘ ২২ বছর ধরে সততার সাথে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে আছি। ভাতশালা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রথমে কর্মী, পরবর্তীতে ওই ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক পদের দায়িত্ব পালন এবং বর্তমানে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে আছি। এই দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে কখনো ক্ষমতার অপব্যবহার করি নাই, দলবাজি, টেন্ডারবাজি করি নাই । সেজন্যই আজকে আওয়ামী পরিবার আমাকে ব্যালট ভোট যুদ্ধের মাধ্যমে আমাকে এই ভাতশালা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতির চেয়ারে বসিয়েছেন।

তাই ভাতশালা ইউনিয়নের সর্বস্তরের সাধারন জনগণ ও তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা চায় এ ইউনিয়ন থেকে আমি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করি এবং আমি এ ইউনিয়নে নির্বাচন করতে নিজেকে যোগ্য মনে করি। কিন্তু দুঃখের বিষয় আজকে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আতিউর রহমান আতিক এমপি সাহেবকে এক শ্রেণীর দালালরা ভূল বুঝিয়েছেন, যেন আমাকে ভাতশালা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী না দেয়া হয়। তাই ইউনিয়নের ৯ টি ওয়ার্ডের ১৮ জন সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে ১৪ জন আমাকে সমর্থণ করলেও আমাকে দল থেকে মনোনয়ন দেয়া হয়নি । অথচ মনোনয়ন দেয়া হয়েছে বিগত দিনে যারা নৌকার বিরোধিতা করেছে তাদেরকে।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, বেশ কয়েক মাস ধরে ভাতশালা ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে সর্বস্তরের জনসাধারনের সাথে গণসংযোগ করে যাচ্ছি এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোয়ন পত্র কিনেছি। তাই আমি ভাতশালা ইউনিয়ন থেকে নির্বাচন করবো। আজকে যাকে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে সে আওয়ামী লীগ রাজনীতির সাথে সরাসরি জড়িত নয়।

এছাড়াও ওই প্রার্থী বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম এবং আমাকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি ও ষড়যন্ত্র করে ছিলেন। তাই আমি বিশ্বাস করি জনগণ আমাকে বেছে নিবে এবং বিজয়ী করবে। আমি জেলায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মী ও প্রশাসনের কাছে সহযোগিতা চাই যেন সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় সংবাদ সম্মেলনে ভাতশালা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান, ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক সালমানসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।