শেরপুরের ভাষা সৈনিক সৈয়দ আব্দুল হান্নান গুরুতর অসুস্থ

শেরপুরের ভাষা সৈনিক ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ সৈয়দ আব্দুল হান্নান গুরুতর অসুস্থ হয়ে ঢাকা সোহরাওর্দি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউ এ ভর্তি রয়েছেন।

ভাষা সৈনিক সৈয়দ আব্দুল হান্নানের ছেলে ডা. সৈয়দ আব্দুল আদিল রূপস জানায়, তার বাবা শেরপুরের বাসায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে বিগত ১০ দিন আগে ঢকায় নিয়ে এসে চিকিৎসা করা হচ্ছে। গত ৪ দিন আগে তার শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে সোহরাওর্দি হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। তবে বর্তমানে তার অবস্থা কিছুটা উন্নতির দিকে।

জানাগেছে, ভাষাসংগ্রামী ও প্রথিতযশা শিক্ষাবিদ হিসেবে সৈয়দ আব্দুল হান্নান শেরপুরের একজন সর্বজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব। ১৯৫২ সালে বগুড়ার আজিজুল হক কলেজে পড়ার সময় তিনি একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে ভাষা আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন। সেসময় শেরপুরে সকল কর্মকান্ডের নেতৃত্বে যে ক’জন তরুন ছিলেন তাদের অন্যতম একজন তিনি । তার বড় ভাই ছাত্রনেতা সৈয়দ আব্দুস সোবহান ভাষা আন্দোলনে অংশ নেয়ার অপরাধে শেরপুর থেকে গ্রেফতার হন । ভাষা আন্দোলন ছাড়াও তিনি ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট, ১৯৬৯ সালের গণঅভ্যুথান এবং ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয় অংশ গ্রহন করেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি পাক হানাদার ও তাদের দেশিয় দোসরদের হাতে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের শিকার হন। ২০০৫ সালে ভাষাসংগ্রামী হিসেবে তিনি রাষ্ট্রীয় সম্মানে ভূষিত হন ।

সৈয়দ আব্দুল হান্নান ১৯৩২ সালে ২৫ ডিসেম্বর শেরপুরে জন্ম গ্রহন করেন । বাবা সৈয়দ আব্দুল হালিম, মা রাবেয়া খাতুন । তিন মেয়ে ও দুই ছেলের জনক তিনি । ১৯৫২ সালে বগুড়ার আজিজুল হক কলেজ থেকে তিনি আই.এস.সি পাশ করেন এবং পরবর্তিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি ১৯৫৬ সালে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতিতে এম.এ এবং ১৯৬৪ সালে এল.এল.বি পাশ করেন । ১৯৬৪ সালের ১৬ জুলাই তিনি শেরপুর সরকারী কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে যোগ দেন এবং ১৯৯৯ সালের ৩০ জানুয়ারি ওই কলেজ থেকেই অবসর নেন ।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের