রাতে বাড়ি বাড়ি উপহার নিয়ে হাজির ঝিনাইগাতীর ইউএনও

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় রাতে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ঈদ সামগ্রী দিলেন ইউএনও রুবেল মাহমুদ।

শনিবার (১০ আগস্ট) সন্ধ্যা সাতটা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত উপজেলার সদর, ধানশাইল ও নলকুড়া ইউনিয়নের দরিদ্র, হতদরিদ্র, প্রতিবন্ধী পরিবার খুঁজে বের করে তাদেরকে এ ঈদ সামগ্রী দেয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সদর ইউপি চেয়ারম্যান মো. মোফাজ্জল হোসেন চাঁন, ধানশাইল ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম, নলকুড়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. আয়ুব আলী ফর্সা প্রমুখ। ঈদ সামগ্রীতে ছিল- সেমাই, চিনি, ডাল, তৈল, বিস্কুট, চিড়া।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গত দুইদিন ও শনিবার এ পর্যন্ত ১ শ ২০ দরিদ্র, হতদরিদ্র, অসহায় ও প্রতিবন্ধীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলার দরিদ্র, হতদরিদ্র, অসহায় ও প্রতিবন্ধী পরিবার যাতে ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত না হয়, সে জন্য খোঁজ নিয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুবেল মাহমুদ।

ইউএনওর হাত থেকে ঈদ সামগ্রী পেয়ে হায়দার আলী নামের একজন বলেন, রাতে ঘুমানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম, এমন সময় ইউএনও এসেছেন শুনে ঘর থেকে বের হই। পরে তিনি আমাদের আর্থিক অবস্থার খবর নেন। এরপর আমাদের ঈদের উপহার দেন। তবে ঈদের আগে এই প্রথম কেউ তাদের এমন উপহার নিয়ে বাড়িতে গিয়ে তাদের পরিবারের খোঁজ খবর নিলেন বলে জানান তিনি।

বাড়ি বাড়ি গিয়ে ঈদ সামগ্রী বিতরণের বিষয়ে ইউএনও রুবেল মাহমুদ বলেন, এ উপজেলায় অনেক দরিদ্র পরিবার ঈদের দিন আনন্দ থেকে বঞ্চিত হন। এ কথা শুনে আমি আমার সহকর্মীদের নিয়ে মাঠে নেমেছি। তারা যাতে ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত না হন। সে জন্যে ইউপি চেয়ারম্যানদের দেয়া তথ্যনুযায়ী বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সামান্য পরিমাণ ঈদ সামগ্রী বিতরণ করছি।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।