যার অন্ত্যই তুমি – হাসান নাশিদ

যার অন্ত্যই তুমি
– হাসান নাশিদ

আমি আমার পৃথিবীকে ছেড়ে দিয়েছি!
এখন আর আমার পৃথিবী আমার নয়!
এটা কারো বা অন্যের পৈর্তৃক সম্পত্তিতে রূপান্তরিত হয়েছে।
শোনো, যাকে তুমি তোমার পৃথিবী মনে করবে সে অন্যের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করতে ব্যস্ত হবে।
তাহলে বলো, আমি কী করে কষ্টটাকে লুকিয়ে রাখি?
আমিতো একজন সাধারণ সাদামাটা মানুষ,
আমার চারপাশ শুধু মরুভূমি আর মরুভূমি!
আমি রোদের প্রখরতাকে ভয়পাইনা সত্যি, কিন্তু তার কিরণ যে আমাকে ব্যথিত করেনা এর গ্যারান্টি দিতে পারবোনা।
আমি রাতের আঁধারকে কখনো অলৌকিক মনেকরিনা, কারণ তুমি আমাকে তা লৌকিকতায় ভরে দিয়েছো।
আজ শোকনো পাতার বিষণ্ন মর মর শব্দের গান বার বার আমার কানে ভেসে আসে।
জানো? আমি আর আগের সেই ছোট্ট পুকুরের ভাসমান ছোট্ট ব্যাঙটি নই!
যাকে তোমার আনন্দের ঢিল বিনোদনকে আশ্রয়করতে সাহায্যকরে।
শীত, গ্রীষ্ম আর বর্ষার মাঝখানে দাঁড়িয়ে তোমায় শপতকরে বলতেপারি-
আমি আর আগের মতন নেই!
মায়ের কোলের সেই খোকাটাকে যদি তোমার জীবনখেলার সাথী মনেকরো,
তাহলে অবশ্যই তুমি ভুলকরবে। যদিও অধিকারে আঙ্গুলপ্রবেশ একদম ইচ্ছার পরিপন্থি।
ভেবে দেখো, কুকড়া আর মৃগীর শাপলাতোলা নাও ও বৈঠাকে আমি এখনো ভুলতে পারিনা।
সেখানে কিভাবে আমার ঐতিহ্য আর নীতিকে বিসর্জন দিবো?
বলতে পারো? আমার চেতনা কার কথা বলতে প্রস্তুত থাকতো!
পারবেনা! কারণ, এর অন্ত্যই হলে তুমি শুধু তুমি।

হাসান নাশিদ
পিএইচডি(গবেষক),
কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়, ভারত

(শেরপুর টাইমস ডট কমের ‍“সাহিত্য পাতা” সকলের জন্য উন্মুক্ত। আপনার স্বরচিত ছড়া- কবিতা, গল্প ও প্রবন্ধ প্রকাশের জন্য ইমেল করুন sherpurtimesdesk@gmail.com এই ঠিকানায়।)

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।