You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

ময়মনসিংহের ভালুকার তরুণ শিল্পপতি মামুন’র সফলতা

আওলাদ হোসেন রুবেল:  ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় তরুণ শিল্পোদ্যোক্তা হিসেবে সফল হয়েছেন আলহাজ্ব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান মামুন।

মাত্র ২৫ বছর বয়সে দেশের শিল্পাঙ্গনে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছেন তিনি। গল্পটা ২০১১ সালের। ছাত্রাবস্থায় ব্যবসায়ী বাবার হাত ধরে ৫০ লাখ টাকা দিয়ে গড়ে তুলেন “সুপ্তি প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং” নামের একটি শিল্প প্রতিষ্ঠান। সেখান থেকে সফল হয়ে মূলধন বাড়িয়ে প্রতিষ্ঠা করেছেন এক্সেসরিজ কোম্পানি, কনস্ট্রাকশন ফার্ম ও সোয়েটার কারখানা। “সুপ্তি সোয়েটার লিমিটেড” নামের শতভাগ কমপ্লাইনস্ ও রপ্তানিমুখী কারখানাটিতে বর্তমানে ১ হাজার শ্রমিক কাজ করছে। তাঁর বিচক্ষণতায় কারখানাটি ইউরোপের বিভিন্ন দেশের বায়ারদের কাছ থেকে প্রচুর অর্ডার পাচ্ছে। বর্তমানে তিনি সুপ্তি সোয়েটার, সুপ্তি প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং, এসআরএফ পলিফ্লেক্স ও শহিদ-মিনা কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

মেধা, পরিশ্রম ও দক্ষতা দিয়ে বর্তমানে তিনি শিল্প ক্ষেত্রে প্রায় শত কোটি টাকার ব্যবসা পরিচালনা করছেন। উচ্চ শিক্ষিত এই তরুণ নটরডেম কলেজ, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষা জীবন শেষ করেছেন। মানব সম্পদ উন্নয়নে স্নাতক ও ব্যবসা প্রশাসনে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করে বর্তমানে তিনি আমেরিকার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি’র জন্যে আবেদন করেছেন। ব্যবসার সুবাদে এশিয়া ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে উচ্চতর প্রশিক্ষন গ্রহন ও ভ্রমনের সুযোগ হয়েছে তাঁর । দেশের তরুণ শিল্পপতি হিসেবে তিনি বিজিএমইএ, এক্সেসরিজ ম্যানুফ্যাকচারিং এসোসিয়েশন ও ময়মনসিংহ চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সদস্যপদ লাভ করেছেন।

অল্প কিছুদিনের মধ্যে রেস্টুরেন্ট ব্যবসা শুরু করার পরিকল্পনা আছে তাঁর। বিনয়ী, ধার্মিক ও পরোপকারী এ মানুষটি ব্যবসার পাশাপাশি নিজ এলাকায় নিজেকে সমাজসেবা মূলক বিভিন্ন কাজে জড়িয়েছেন। মসজিদ, মাদ্রাসা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত অনুদান দিচ্ছেন। প্রতিবছর দরিদ্র ও অসহায়দের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করছেন।

তাঁর অার্থিক অনুদানে কয়েকটি এতিমখানা পরিচালিত হচ্ছে। নিজ এলাকার গরীব ও অসহায় মানুষদের সবসময় সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। নিজ প্রতিষ্ঠানে তিনি এলাকার অনেক যুবক, যুবতীকে চাকরীর সুযোগ দিয়েছেন। আর সবকিছুর মূলে তাঁর বাবা, ভালুকার প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী আলহাজ্ব শহিদুল ইসলামকেই আদর্শ ও অনুপ্রেরণার মূলমন্ত্র হিসেবে মানেন তিনি।

তরুণ উদীয়মান শিল্পপতি ও সমাজসেবক আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান মামুন জানান, “মেধা, পরিশ্রম, নিষ্ঠা ও সততা থাকলে যে কেউ সফল হতে পারে। আমি ক্ষুধা ও দারিদ্র্য মুক্ত একটি উন্নত বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখি। দেশের অার্থ-সামাজিক উন্নয়নে তরুণরা অনেক ভূিমকা রাখতে পারে, দেশ গঠনে তাদের এগিয়ে আসা উচিত।”

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!