You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

মহির উদ্দিনের ভাগ্যে জুটেনি বয়স্ক ভাতা কার্ড


শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের কান্দুলী গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিনের পুত্র মো. মহির উদ্দিন। বয়স ৭০ বছর। সহায়সম্বল ও ভূমিহীন মহির উদ্দিন কান্দুলী আশ্রয়ন কেন্দ্রের সদস্য। অন্যের কৃষি কাজ করে খুব কষ্ট করে মানবেতর জীবন যাপন করেন। মাঝে মাঝেই বিভিন রোগে ভুগেন তিনি। চোখের দৃষ্টিও কিছুটা হ্রাস পেয়েছে। অর্থের অভাবে চিকিৎসাও করতে পারেন না। এতো কিছুর পরেও তার ভাগ্যে জোটেনি বয়স্ক ভাতার কার্ড।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জাতীয় পরিচয়পত্র অনুুযায়ী তার জন্ম তারিখ ১৯৪৭ সালের ০৫ মার্চ। তার ২ ছেলে ও ৪ মেয়ে। মেয়েদের বিয়ে দিয়েছেন আর ছেলেদের বিয়ে করানোর পর তারা নিজেদের সংসার নিয়েই ব্যস্ত। বৃদ্ধ মো. মহির উদ্দিন জানান, মেম্বার ও চেয়ারম্যানদের অনেক বলার পরও ভাতার কার্ড পাননি। আর ছেলেরা আয় করে তাদের পেটই বাঁচাতে পারে না বলে জানান তিনি। ধানশাইল ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, আমি এবার দায়িত্ব গ্রহণের পর বয়স্ক ভাতা কার্ডের বরাদ্দ পায়নি। বরাদ্দ পেলে মহির উদ্দিনকে কার্ড দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেব।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ.জেড.এম শরীফ হোসেন বলেন, আমি বিষয়টি দেখব।

শেরপুর জেলা সমাজসেবা বিভাগের উপ-পরিচালক এআরএম ওয়াহিদজ্জুামান বলেন, যেহেতু সরকারী আশ্রয়ণ কেন্দ্রের সদস্য তিনি একটি দরখাস্ত ইউএনও সাহেবের নিকট জমা দিতে বলেন। জমা দেয়ার পর বিষয়টি দেখব।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!