You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

ভাই কত নিলো?

শুরু হয়েছে পবিত্র ঈদ-উল-আজহার আমেজ। কারণ এই ঈদের মূল উদ্দেশ্যই পশু কুরবানি করা। তাই একে কুরবানির ঈদও বলা হয়। সামর্থ্যবান মুসলমানরা পশু জবাইয়ের মাধ্যমে আল্লাহর কাছে পরিপূর্ণভাবে নিজেকে আত্মসমর্পণ এবং পরিশুদ্ধ করার সুযোগ কাজে লাগায়। এজন্য সারাবিশ্বের মুসলিমরা ঈদের জন্য পছন্দের পশু কুরবানি করে থাকেন।

তাই এই পশু নিয়েও মানুষের কৌতূহলের শেষ নেই। ‘ভাই দাম কত, কত নিলো’ হাট থেকে গরু কিনে বাড়ি ফেরার সময় পথে এমন প্রশ্ন সব পথচারীর। ঈদ উপলক্ষে শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলায় এখন সবচেয়ে বেশি উচ্চারিত কথা এটিই।

আজ ২০ আগস্ট সোমবার সকালে শেরপুরের শ্রীবরদী পশ্চিম বাজার হাট থেকে গরু কিনে ফিরছিলেন নওশেদ আলী। তার সঙ্গে ছিল দুই ছেলেও। কিন্তু পথচারীদের একটাই কথা- ভাই দাম কত, কত নিলো?

নওশেদ আলী বলেন এ প্রতিবেদককে বলেন, এক কিলোমিটার পথে অন্তত ২৫ জনকে এই এক কথার জবাব দিয়েছি। প্রশ্নের উত্তর দিতে নওশেদ আলী বিরক্ত নন। তিনি বলেন, কুরবানির পশু আগেও কিনেছি। এ ধরনের অভিজ্ঞতা আছে। তাই কেউ জিজ্ঞাসা করলে বিরক্ত হওয়ার কিছু নেই। অনেকটা ভালোও লাগছে। কারণ মানুষ দাম শুনে অন্তত হাট থেকে গরুর দাম সম্পর্কে একটা আন্দাজ পাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, হাট থেকেই এই প্রশ্নের উত্তর দিতে দিতে আসছি। হাটেই অনেকে জানতে চেয়েছেন। বাজারে পশুর দাম অন্যবারের চেয়ে এবার একটু বেশি। তবুও পছন্দের গরুটি কিনতে পেরে খুশি বলে জানান তিনি।

শুধু যে হাট থেকে আনার পথেই পথচারীরা পশুর দাম জিজ্ঞাসা করছেন- এমন নয়, রাস্তার ধারে, বাড়ির পাশে বাঁধা গরুটির দামও জানতে চাইছেন।

শ্রীবরদী পশ্চিম বাজার সড়কে আসতে দেখা যায় একসঙ্গে ৭টি গরু। সেখানে গরু আশপাশ দিয়ে হেঁটে হেঁটে আসছে শিশুরাও। পথচারীরা তাদের কাছেও গরুর দাম জিজ্ঞাসা করছেন ‘ভাই দাম কত, কত নিলো’?

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!