নালিতাবাড়ীর চেল্লাখালি নদীতে নিখোঁজের ৪৬ ঘন্টা পর শিশুর লাশ উদ্ধার

শেরপুরে নালিতাবাড়ীর খরস্রোতা চেলাøখালি নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হওয়ার ৪৬ ঘন্টা পর শিশু নুর ইসলামের (৮) লাশ উদ্ধার হয়েছে।

৩ জুন সোমবার বেলা ১১টার দিকে নন্নী উত্তরবন্দ এলাকায় আধা কিলোমিটার ভাটিতে প্রয়াত গফুর চেয়ারম্যানের বাড়ীর নিকটে নদীর পানিতে ভাসমান অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত নূর ইসলাম ওই এলাকার হাশেম আলীর ছেলে।

নন্নী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান একেএম মাহবুবুর রহমান রিটন জানান, ১ জুন শনিবার দুপুর ১টার দিকে দুই ভাই-বোন মীম বেগম ও নূর ইসলাম তাদের বাড়ীর পাশের চেল্লাখালি নদীতে গোসল করতে নামলে স্রোতের টানে দুই ভাইবোনই নদীর পানিতে তলিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাৎক্ষনিকভাবে বোন মীমকে উদ্ধার করতে পারলেও নূর ইসলাম নিখোঁজ হয়। দমকল বিভাগের ডুবুরিয়া দুই দিন ধরে নদীতে অনেক অনুসন্ধান চালিয়েও তার কোন খোঁজ পায়নি।

অবশেষে সোমবার উত্তরবন্দ আমবাগান এলাকায় চেল্লাখালি নদীর ব্রীজপাড় ঘাটের আধা কিলোমিটার ভাটিতে প্রয়াত গফুর চেয়ারম্যানের বাড়ীর নিকটে নদীর পানিতে লাশ ভেসে উঠলে স্থানীয়রা লাশটি উদ্ধার করে। সংবাদ পেয়ে পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশু নূর ইসলামের লাশ শনাক্ত করেন।

স্থানীয়রা জানান, নালিতাবাড়ী উপজেলার নন্নী উত্তরবন্দ গ্রামের মৃত সমশের আলীর ছেলে আবুল হাশেম স্বপরিবারে ঢাকায় বসবাস করে বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করেন। ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আবুল হাশেম তার দুই সন্তান মীম বেগম ও নূর ইসলামকে আগেভাগেই দাদার বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছিলেন। দাদাবাড়ীর পাশে চেল্লাখালি নদীর ঘাটে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে শিশু নূর ইসলামের মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটে।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।