নালিতাবাড়ীতে যৌননিপীড়ন ও ধর্ষণ বিরোধী পদযাত্রা

ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাযিল মাদ্রাসার মেধাবী শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নির্যাতন ও নির্মমভাবে পুড়িয়ে হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবীতে নালিতাবাড়ীতে যৌননিপীড়ন ও ধর্ষণ বিরোধী পদযাত্রা এবং মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ সকালে নালিতাবাড়ী প্রেসক্লাবের আয়োজনে উপজেলা পরিষদের সামনে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। এতে বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিক, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- প্রেসক্লাবের সভাপতি এম এ হাকাম হীরা, সহ-সভাপতি লাল মোহাম্মদ, সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব দে কেটু, সাংবাদিক আব্দুল মান্নান সোহেল, মঞ্জুরুল আহসান, সাইফুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম, আমিনুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুকছেদুর রহমান লেবু ও পৌরসভার মেয়র আবু বক্কর সিদ্দীক ওই মানববন্ধনে অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, যে বা যারা মেধাবী শিক্ষার্থী নুসরাতকে পুড়িয়ে নির্মমভাবে হত্যা করেছে তারা সবাই সন্ত্রাসী। এর সাথে জড়িত সকল অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে দ্রুত দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী করেন তারা।

উল্লেখ্য, ৬ এপ্রিল ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি পরীক্ষা দিতে গেলে দুর্বৃত্তরা তাঁর গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই দিন রাতে তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। গতকাল বুধবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে নুসরাত জাহান রাফি মারা যান। এর আগে গত ২৭ মার্চ মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মামলা করেন নুসরাতের মা। এ মামলা তুলে নিতে চাপ দিতে থাকে দুর্বৃত্তরা। এতে নুসরাত ও তাঁর পরিবার রাজি হয়নি। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে লাইফ সাপোর্টে যাওয়ার আগে নুসরাত চিকিৎসকদের কাছেও জবানবন্দি দেন।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের