নালিতাবাড়ীতে যুবতীর খন্ডিত মাথা ও দেহ উদ্ধার

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে রোকশানা বেগম (২২) নামে এক যুবতির খন্ডিত মাথা ও দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার সকালে উপজেলার রাজনগর ইউনিয়নের সুরতখাল সংলগ্ন একটি আবাদি জমিতে পৃথক পৃথক ভাবে পুঁতে রাখা অবস্থায় এ লাশ উদ্ধার করা হয়। রোকসানা ঝিনাইগাতী উপজেলার বনগাঁও পূর্বপাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের মেয়ে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার রাজনগর ইউনিয়নের চাঁদগাও গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে মাসুদ নামে এক ব্যক্তি এক সন্তানের জননী রোকসানাকে কাজ দেওয়ার কথা বলে গত ১৭ জানুয়ারি নালিতাবাড়ীতে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসেন। এর পর গত ১৭ জানুয়ারি মঙ্গলবার থেকে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না।

হঠাৎ করেই গতকাল বৃহষ্পতিবার সকালে সুরত খাল সংলগ্ন একটি জমিতে একটি মহিলার লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ বকুলকে জানায়।

সে বিষয়টি নালিতাবাড়ী থানা পুলিশকে জানালে, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের কোন সন্ধান পাননি। পরে এলাকাবাসী সুরত খালের পানি সেঁচে রাত ভর লাশের সন্ধান করতে থাকে। অবশেষে সকাল বেলা রাতের মধ্যেই তড়িঘড়ি করে একটি জমিতে বোরো ধান রোপণ করা দেখে তাদের সন্দেহ হয়।

সেখানে তল্লাশি চালানোর পর জমির এক জায়গায় পুঁতে রাখা অবস্থায় খন্ডিত মাথা ও আরেক জায়গায় শরীরের কিছু অংশ পায়। তবে হাত ও পা পাওয়া যায় নি। খবর পেয়ে রোকশানার মা পরিহিত জামা দেখে তার মেয়ের মৃতদেহ সনাক্ত করেন।

এ ব্যাপারে সার্কেল এএসপি জাহাঙ্গির আলম জানান, লাশের হাত ও পা উদ্ধারের জন্য তল্লাশি অব্যাহত রয়েছে। এদিকে এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের