নালিতাবাড়ীতে বন্যহাতির তান্ডবে আমন ফসল লন্ডভন্ড

ফাইল ছবি

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার সীমান্তবর্তী আন্ধারুপাড়া গ্রামে বন্যহাতির দল মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) রাতব্যাপী তান্ডব চালিয়ে খেয়ে ও পা দিয়ে মাড়িয়ে আমন ফসলের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করেছে। এতে কমপক্ষে ৯ জন কৃষক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ইন্তাজ আলী জানান, মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে পশ্চিম দিক থেকে বন্যহাতির দল আন্ধারুপাড়া এলাকায় এসে ধান ক্ষেতে নামে। এসময় গ্রামের মানুষ ঘুমে ও বৃষ্টি থাকায় হাতিরদলকে তাড়াতে পারেননি তারা। সুযোগ পেয়ে হাতির দল মনমতো সদ্য রোপিত আমন ধানের ক্ষেত খেয়ে ও পা দিয়ে মাড়িয়ে নষ্ট করে প্রায় ৮ একর আমন ধানের ক্ষেত।
এতে জর্জ মারাকের ১০ কাঠা, সিরাজুলের ১ একর, মেজেস মারাকের ১৮ কাঠা, জন মারাকের ১৬ কাঠা, ইন্তাজ আলীর ১ একর, সুমন মারাকের ১০ কাঠা, পন্ঠিত মারাকের ১ একর ৭ কাঠা, হাসু মিয়ার ১০ কাঠা ও মি. লুইস নেংমিনজার ১০ কাঠা জমির আমন ধানক্ষেত বিনষ্ট করে হাতির দল পাশের জঙ্গলে আশ্রয় নিয়েছে। যে কোন মুহুর্তে আবার ধান ক্ষেতে নামতে পারে।
ট্রাইবাল ওয়েল ফেয়ার এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান মি. লুইস নেংমিনজা বলেন, বন্যহাতির দল দীর্ঘদিন যাবত এই এলাকার কৃষকের ক্ষতি করে আসছে। এর একটা সমাধান করা দরকার।
এ ব্যাপারে বনবিভাগের মধুটিলা রেঞ্জকর্মকর্তা আব্দুল করিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বন্য হাতির দল মাঝে মধ্যেই হামলা করে কৃষকের ধানক্ষেত ও বাড়ি-ঘর ধ্বংশ কওে আসছে। এতে আমরা খুবই সচেতন আছি। আমাদের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিষয়টি অবগত করেছি।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।