নালিতাবাড়ীতে পলিথিন ও বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালত

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে উপজেলা প্রশাসন আজ শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) দিনব্যাপী বিভিন্ন এলাকায় নিষিদ্ধ পলিথিন ও অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেছেন।

নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আরিফুর রহমান এবং সহকারী কমিশনার (ভুমি) লুবনা শারমীন যৌথভাবে এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।

উপজেলা প্রশাসন সুত্র জানায়, উপজেলার সীমান্তবর্তী চেল­াখালী নদীর ব্রীজের আধা কিলোমিটারের মধ্যে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন নিষিদ্ধ থাকলেও নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে বালু শ্রমিক বারমারী এলাকার আন্ধারুপাড়া গ্রামের আব্দুল মালেক (৪৫) ও আব্দুল মোতালেব (৩৮) নামের দুই ব্যক্তিকে সাত দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। সাজাপ্রাপ্তদের শনিবার (৩০ নভেম্বর) কারাগারে প্রেরন করা হবে।
এদিকে, বারমারী বাজারের মাইনদ্দিনের হোটেলে ও শাহজাহানের মনোহারী দোকানে পলিথিন বিরোধী অভিযান করা হয়। এসময় নিষিদ্ধ পলিথিন দোকানে রাখার অপরাধে মাইনদ্দিনকে ২ হাজার ও শাহজাহানকে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

পরে বিকেলে উপজেলার আমবাগান এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে সরকারী বরাদ্দের ঘর পাইয়ে দেয়ার কথা বলে ৩০ হাজার টাকা ঘুষ নেয়ার অভিযোগে আলী আজগর (৫০) নামের আরেক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। এসময় ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ঘুষের ৩০ হাজার টাকা নগদ ফিরিয়ে দিয়ে ও ভবিষ্যতে আর এ ধরনের কাজ করবে না মর্মে মুচলেকা দিলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আরিফুর রহমান অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নদীর বালু উত্তোলনকারী ও নিষিদ্ধ পলিথিনের বিরুদ্ধে এ ধরনের ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Print Friendly, PDF & Email
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।