You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

নালিতাবাড়ীতে জোরপূর্বক স্কুলছাত্রীর গালে চুমু দেয়ার অভিযোগে গ্রেফতার-৩

দশম শ্রেণি পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে প্রকাশ্যে জোরপূর্বক চুমু দেওয়ায় ৩ যুবককে গ্রেফতার করেছে শেরপুরের নালিতাবাড়ী থানা পুলিশ। গত ৯ জানুয়ারি বুধবার রাতে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের পর বৃহস্পতিবার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার সন্নাসীভিটা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে প্রায়ই রাস্তা-ঘাটে উত্যক্ত করত নলজোরা গ্রামের আবুল হাশেমের ছেলে মেহেদী হাসান (২০)। কিন্তু ওই ছাত্রী এতে রাজী না হয়ে পরিবারের লোকদের জানায়। ফলে স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে প্রায়ই তার ভাই ছোট বোনের চলার পথে এগিয়ে দিয়ে যেত। কিছুদিন আগে বাড়ি থেকে বিদ্যালয়ে আসার পথে বখাটে মেহেদী ও তার বন্ধুরা ওই স্কুলছাত্রীর সাথে তার ভাইকে আসতে তার ভাইকে দেখে মারধর করে। পরে এ নিয়ে গ্রাম্য শালিশে বিষয়টি সুরাহা করা হয়।

এদিকে ৬ জানুয়ারি সোমবার বেলা সাড়ে বারোটার দিকে ওই শিক্ষার্থী বিদ্যালয় থেকে বাড়ি যাচ্ছিল। পথিমধ্যে চেল্লাখালী নদীতীরবর্তী রাস্তায় মেহেদী তার বন্ধুদের সঙ্গে নিয়ে পথ রোধ করে এবং প্রকাশ্যে গালে চুমু দিয়ে বসে। বিষয়টি জানাজানি হলে ভোক্তভোগীর পিতা বাদী হয়ে ৯ জানুয়ারি নালিতাবাড়ী থানায় অভিযোগ দাখিল করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মেহেদী হাসান, বন্ধু দক্ষিণ রানীগাঁও গ্রামের মুছা মিয়া (১৯) ও অপর বন্ধু কৃষ্ণপট্টি গ্রামের তুষারকে (২০) গ্রেফতার করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল খায়ের সাংবাদিকদের জানান, অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত তিন আসামীকেই গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে এবং ভোক্তভোগীকে আদালতে জবানবন্দির জন্য প্রেরণ করা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!