নালিতাবাড়ীতে চিরকুট লিখে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার বারমারী এলাকার আন্ধারুপাড়া গ্রামে মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় চিরকুট লিখে নিতী আক্তার (১১) নামের চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। পুলিশ রাত দশটার দিকে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ ও তার লিখা চিরকুট উদ্ধার করেছে। নিহত নিতী ওই গ্রামের আল আমীনের কণ্যা।

পুলিশ ও পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, নিতীর সৎ মা’সহ তার বাবা ঢাকায় বসবাস করেন। আর নিতী তার দাদী ফুলবানুর সাথে বাড়িতে থেকে স্থানীয় ব্র্যাক স্কুলে চতুর্থ শ্রেণিতে লেখাপড়া করছিল। ঢাকায় থাকার কারনে তার বাবা তেমন খোঁজখবর নিতেন না। এমনকি তার নানা-নানি ও স্বজনরা নিতীকে ভালোবাসতো না। তাই অভিমান করে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে চিরকুট লিখে দরজা বন্ধ করে বসত ঘরের আড়ার (ধন্না) সাথে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে সে। নিতী তার চিরকুটের একাংশে লিখেছে তার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী না। স্বজনদের সাথে অভিমান করে সে নিজেই আত্মহত্যা করেছে।

এ ব্যাপারে নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ বাদল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি এবং ময়না তদন্ত করার জন্য ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে। তিনি আরো জানান, নিতীর লেখা চিরকুটে বেশ কিছু লেখা আছে সেই সুত্র ধরে তদন্ত চলছে। পরবর্তীতে সে অনুযায়ী আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।