নালিতাবাড়ীতে ইউপি চেয়ারম্যানের গুলিতে কৃষক নিহতের অভিযোগ

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দুই পক্ষের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান পক্ষের গুলিতে ইদ্রিস আলী নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে ।

আাজ ২৫ এপ্রিল বৃহ্স্পতিবার দুপুরে যোগানিয়া ইউনিয়নের কুত্তামারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে । নিহত ইদ্রিস আলী যোগানিয়া ই্উনিয়নের কুত্তামারা গ্রামের ফজর রহমানের পুত্র। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গুলির খোসা উদ্ধার করে। সেই সাথে চারজনকে আটক করে । ইদ্রিস হত্যায় অভিযুক্ত চেয়ারম্যান পলাতক রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের পরিবার সুত্রে জানা গেছে, ২৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টায় বোরো ধান কাটা নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হবি ও একই গ্রামের সোরহাব আলীর মধ্যে বিরোধকে কেন্দ্র করে কুত্তামারা ব্রিজের কাছে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এ সময় চেয়ারম্যান পক্ষের গুলিতে ইদ্রিস আলী ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। বেলা ২ টায় তাকে নালিতাবাড়ী হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইদ্রিসকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত পরিবারের দাবি, ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হবি দলবল নিয়ে ইদ্রিসের বাড়িতে আক্রমণ চালায়। এ সময় চেয়ারম্যানের গুলিতে ইদ্রিস নিহত হয়। পুলিশ হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে গেছে।

নালিতাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আবুল খায়ের ইদ্রিস নিহতের ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করে হত্যা ঘটনায় অভিযুক্ত ৪ ব্যক্তিকে আটক করেছেন বলে জানান।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।