নালিতাবাড়ীতে অগ্নিকান্ডে ১০ ঘর ভস্মিভূত । । অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার ডহরিয়াপাড়া গ্রামে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৮টি বসতবাড়ির ১০টি ঘর ভস্মিভূত হয়েছে। এতে অন্তত অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্থরা ।মঙ্গলবার (৫ জুন) রাত এগারোটার দিকে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির মালিক ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত এগারোটার দিকে মোতালেবের ঘর থেকে আকস্মিক আগুনের লেলিহান শিখা চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। কোনকিছু বুঝে ওঠার আগেই তা আশপাশের বসতঘরগুলোতেও লেগে যায়।

এসময় অনেকেই ঘুমিয়ে ছিলেন। এতে মুহূর্তেই মোতালেব, মান্নান, সালাম, কনছর আলী, করিম, নাজমুল, রহিম ও মস্তুফার ১০টি ঘর ভস্মিভূত হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের শেরপুর ও নালিতাবাড়ীর ২টি ইউনিট ঘটনাস্থলে ছুটে আসে দীর্ঘক্ষণ চেষ্টার পর রাত একটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ফলে বেঁচে যায় আশপাশের অন্তত অর্ধশত বাড়ি।

 

ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির মালিকরা জানান, এত দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ে যে ঘরের কোনকিছু বের করা সম্ভব হয়নি। কোনমতে প্রাণে বেঁচেছেন তারা। এতে অন্তত প্রায় অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আগুনের কারণ স্পষ্টভাবে কেউ উল্লেখ করতে না পারলেও বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লেগেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই এলপি গ্যাস এর সিলিন্ডার থাকায় দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শেরপুরের ফায়ার স্টেশন মাস্টার সুবল দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন ক্ষতির পরিমান নির্ণয়ে কাজ করছেন তারা ।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের