নাকুগাঁও ইমিগ্রেশন হঠাৎ বন্ধে বাংলাদেশীদের ভোগান্তি

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার সীমান্তবর্তী নাকুগাঁও ইমিগ্রেশন অজ্ঞাত কারণে বন্ধ রেখেছে ভারতীয় সীমান্তরী বাহিনী বিএসএফ। ৪ আগস্ট শুক্রবার দিনভর এ ইমিগ্রেশন বন্ধ থাকায় ভারতে যেতে না পেরে হয়রানীর শিকার হয়েছে ১৭জন ভারত গমনেচ্ছু বাংলাদেশী নাগরিক।

ইমিগ্রেশন ও বিজিবি সূত্র জানায়, শুক্রবার সকাল নয়টার দিকে ভারতে গমনেচ্ছু কয়েকজন বৈধ পাসপোর্ট ও ভিসাধারী বাংলাদেশী বাংলাদেশের ইমিগ্রেশন হয়ে ভারত সীমান্তে যান। এসময় ভারতীয় সীমান্তরী বাহিনী বিএসএফ তাদের সীমান্তে আটকে দেয় এবং উপরের নির্দেশ না আসা পর্যন্ত অপো করতে বলে। পরে নাকুগাঁও ইমিগ্রেশন পুলিশ ও হাতিপাগার বিজিবি ক্যাম্পের প থেকে ভারতের কিল্লাপাড়া বিএসএফ ক্যাম্পে যোগাযোগ করা হলে তাদের প থেকে জানানো হয়, উপরের নির্দেশে সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে। কিছুণ পরই নির্দেশ আসবে। এরপর ছেড়ে দেওয়া হবে। কিন্তু সারাদিন অপোর পরও কোনপ্রকার অনুমোতি না মেলায় শেষ অবধি ১৭ জন বাংলাদেশী ফিরে যায়। এরমধ্যে শিশু রোগীও ছিল।

এ ব্যাপারে হাতিপাগার বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার নাম প্রকাশ না করার শর্তে ইমিগ্রেশন বন্ধের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ইমিগ্রেশন বন্ধের কোন কারণ জানানো হয়নি।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের