নকলায় ২৭ হাজার শিশু খেলো ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল

শেরপুরের নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেপ্লক্স এর ব্যবস্থাপনায় শনিবার (১১ জানুয়ারী) দিনব্যাপী প্রায় ২৭ হাজার ২৯৩ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানোর কাজ উদ্বোধন করা হয়েছে।

সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সের ইপিআই কেন্দ্রে উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. মো. মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এক শিশুকে নিজ হাতে ক্যাপসুল খাইয়ে ওই ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করেন। পরে পর্যায়ক্রমে উপজেলা শাহ মো. বোরহান উদ্দিন, ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সারোয়ার আলম তালুকদার বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে নিজ হাতে একটি করে শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ান।

এসময় হাসপাতালে কর্মরত ডাক্তারগণ, মেডিকেল টেকনোলজি ইপিআই মো. আব্দুর রহিম, টেকনোলডিস্ট আবু কাউসার বিদ্যুতসহ ওই ইপিআই কেন্দ্রে কর্মরত তদারককারী ও সেচ্ছাসেবকগন উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. মো. মজিবুর রহমান জানান, শনিবার সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খায়ানোর ক্যাম্পেইন সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

মেডিকেল টেকনোলজি-ইপিআই (এমটিইপিআই) মো. আব্দুর রহিমের দেওয়া তথ্য মতে, উপজেলায় ৬ মাস থেকে ১১ মাস বয়সী শিশুর লক্ষ্য মাত্র ২ হাজার ৯০৩ জন এবং ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুর লক্ষ্য মাত্রা নিধর্দারন করা হয়েছে ২৪ হাজার ৩৯০ শিশু। তিনি আরও জানান, ৬ মাস থেকে ১১ মাস বয়সী শিশুকে একটি করে নীল রঙের এবং ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুকে একটি করে লাল রঙের ‘এ’ প্লাস ক্যাপসূল (ভিটামিন-এ) খাওয়ানো হচ্ছে। ক্যাম্পেইন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ২১৭ টি কেন্দ্রের মাধ্যমে প্রাপ্য শিশুদের ‘এ’ প্লাস ক্যাপসূল খাওয়ানো হচ্ছে। উপজেলার প্রাপ্য সব শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসূল খাওয়ানোর লক্ষ্যে ২১৭ টি কেন্দ্রের জন্য এক জন করে প্রথম সাড়ির তদারক কারী, এক জন করে মাঠকর্মী (স্বাস্থ্য সাস্থ্যকারী, এফডবিøউএ ও সিএইচসিপি) এবং প্রতি কেন্দ্রে ২ জন করে মোট ৪৩৪ জন সেচ্ছাসেবক দায়িত্ব পালন করছেন।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।