থার্টি ফাস্ট নাইটে যেসব এলাকায় যাওয়া যাবে না

বড়দিন ও থার্টি ফার্স্ট নাইট উপলক্ষে রাজধানীর নিরাপত্তায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি সাদা পোশাকধারী নিরাপত্তাকর্মী কাজ করবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

থার্টি ফাস্ট নাইটে রাত আটটার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, গুলশান, বনানী ও বারিধারা এলাকায় বহিরাগতরা প্রবেশ করতে পারবেন না বলেও জানান মন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ‘বড়দিন উপলক্ষে ঢাকা শহরের পাঁচ হাজারেরও বেশি অধিক নিরাপত্তা কর্মী থাকবে চার্চের দায়িত্বে। পর্যাপ্ত সংখ্যক সাদা পোশাকধারী নিরাপত্তাকর্মী এই দু-তিনদিনের জন্য কাজ করবে।’

তিনি আরো জানান, ‘৩১ ডিসেম্বর বিকেল থেকে ঢাকা শহরের সকল বার বন্ধ থাকবে। থার্টি ফাস্ট নাইট রাত আটটার পর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, ছাত্র এবং তাদের নির্দিষ্ট গাড়ি ছাড়া অন্য গাড়ি এবং এই এলাকায় ঢোকা আমরা নিয়ন্ত্রণ করবো।’

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের