ঢাকাস্থ শেরপুর সমিতির সাধারণ সভা

ঢাকায় অবস্থানরত শেরপুর জেলার নাগরিকদের নিয়ে গঠিত ঢাকাস্থ শেরপুর জেলা সমিতির সাধারণ সভা রবিবার বিকেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজধানী ঢাকার ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউটে শেরপুর জেলা সমিতির মহাসচিব মো. নুরুজ্জামান মুন্নার সভাপতিত্বে ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে নৌ পরিবহন মন্ত্রনালয়ের মাননীয় সচিব আবদুস সামাদ, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের মাননীয় সচিব মো. নজরুল ইসলাম, অতিরিক্ত সচিব আজহারুল ইসলাম খান ও খন্দকার রাকিবুর রহমান সুহেল, যুগ্ম সচিব মো. বিল্লাল হোসেন ও পঙ্কজ কুমার পাল, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর তসলিমা খাতুন, বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতি শেলী, কার্যকরী সদস্য সফিকুল ইসলাম সুখনসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ ও আমন্ত্রীত শুভাকাঙ্খীরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সর্বসম্মতিক্রমে শেরপুর জেলা সমিতির খসড়া গঠনতন্ত্র কন্ঠ ভোটে অনুমোদন দেয়া হয়। তাছাড়া শেরপুর জেলার উন্নয়নে বক্তারা তাদের দাবী দাওয়া তুলে ধরেন এবং শেরপুরকে দেশ বিদেশে তুলেধরতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনের সিদ্ধন্ত গৃহীত হয়। নৌ মন্ত্রনালয়ের মাননীয় সচিব আবদুস সামাদ এবং সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের মাননীয় সচিব মো. নজরুল ইসলাম শেরপুর জেলার উন্নয়নে তাঁদের পরিকল্পনার কথা উপস্থিতিদের সামনে তুলে ধরেন। বিশেষ করে শেরপুর জেলায় রেলপথের দাবীতে আগামী ৭ দিনের মধ্যে রেল মন্ত্রণালয়ের যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করবেন বলে সভায় উপস্থিতিদের জানান দেওয়া হয়। তাছাড়া বাংলা-ভারত সীমান্ত জেলা গারো পাহাড়ের পাদদেশীয় এই শেরপুর জেলায় পর্যটন শিল্পের ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে। সম্ভাবনাময় এই দর্শনীয় এলাকাকে দেশ বিদেশে সর্বত্র পরিচয় করিয়ে দিতে এবং দেশি বিদেশী পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে সবাইকে সাথে নিয়ে কিভাবে এগিয়ে যাওয়া যায় এবিষয়ে তাঁদের পরিকল্পনার কথা উপস্থিতিদের সাথে শেয়ার করেন এবং সবার মতামত জানার চেষ্টা করেন তাঁরা।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের