ঝুঁকির মুখে শ্রীবরদীর সীমান্ত রাস্তার সেতু

ঝুঁকির মুখে শেরপুরের শ্রীবরদীর সীমান্ত রাস্তার বালিজুড়ি সেতু। সেতুর মাঝখানের টপ স্লাবের কিছু অংশ ধসে পরেছে। যেকোন মূহুর্তে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। এতেকরে যাত্রীবাহী যান ও সাধারন মালবাহী পরিবহন চলাচলে বিঘœ ঘটছে। দূর্ঘটনা এড়াতে এবং সতর্কতার জন্য বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ তাওয়াকুচা সীমান্ত ফাঁড়ির পক্ষ থেকে লাল নিশান লাগানো হয়েছে।

জানা গেছে, ২০০৪/২০০৫ অর্থ বছরে বালিজুড়ি বাজারের পুর্ব পার্শ্বে সোমেশ্বরী নদীর উপর এলজিইডি’র অধীনে ১শ ৬০ মিটার দৈর্ঘ্য সেতুটি ২ কোটি ৩৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে মেসার্স হক ব্রাদার্স সেতুটি নির্মাণ করে। পরবর্তীতে সীমান্ত সড়ক হওয়ার পর সেতুটি সড়ক ও জনপথের অধীনে চলে যায়। সীমান্ত সড়ক হওয়ায় প্রতিদিন এ সেতুর উপর দিয়ে পাথর ও বালু বোঝাই ট্রাক এবং যাত্রীবাহী বাসসহ বিভিন্ন ভারী যানবাহন যাতায়াত করে। গত ১১ অক্টোবর রাতে বালুবাহী ট্রাক সেতুর উপর দিয়ে যাওয়ার সময় সেতুটির কিছু অংশ ধসে পরেছে। এরপরেও ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন এ সেতুর উপর দিয়ে যানবাহন চলাচল করছে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ তাওয়াকুচা সীমান্ত ফাড়ির ক্যাম্প ইনচার্জ নায়েক সুবেদার আলাউদ্দিন জানান, সীমান্ত রোডের গুরুত্বপুর্ণ এ সেতুর উপর দিয়ে প্রতিদিন ভারী বালুবাহী ট্রাক চলাচলের কারণে সেতুটির টপ স্লাব ধসে পরেছে। দূর্ঘটনা এড়াতে আমার পক্ষ থেকে ধসে পড়া স্থানের উপর লাল নিশান লাগিয়ে দিয়েছি। সড়ক ও জনপদের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান উদ্দিন আহমেদ জানান, সেতুটির ভাঙ্গা অংশটি মেরামত করে যানবাহন চলাচলের ব্যবস্থা করেছি। বিষয়টি নিয়ে আমাদের ডিপার্টমেন্টের ডিজাইন ইউনিটের সাথে যোগাযোগ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।