You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

ঝিনাইগাতীতে শীতার্থদের জন্য বরাদ্দ ২৪৫০ কম্বল

এই অফিসে থাহে (প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়), ইনু হাতে টিফও নিছে, নামও লেহি নিছে মমতাজ বেগম আরও ১ সপ্তাহ আগে। কিন্তু সেই কম্বলও আইজ পর্যন্ত পাইলাম না। ৮ জানুয়ারী সোমবার ২.১৬মিনিটের দিকে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে এই কথাগুলো এ প্রতিবেদককে বলছিলেন, হাতিবান্দা ইউনিয়নের চকপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের স্ত্রী মমতাজ বেগম। তিনি সকাল ৯টায় বাড়ি থেকে এসে কম্বল না পেয়ে শূণ্য হাতে বাড়ি ফিরে যান।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, এ উপজেলার জনসংখ্যা প্রায় ১ লাখ ৭৫ হাজার। এই জন সংখ্যার অর্ধেকই অতি দরিদ্র। অথচ বিপুল সংখ্যক এই জনসংখ্যার জন্য সরকারিভাবে কম্বল বরাদ্দ করা হয়েছে মাত্র ২ হাজার ৪শ’ ৫০টি। যা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই অপ্রতুল। এছাড়া গত ১ সপ্তাহের সূর্যের লুকোচরি ও শৈত্য প্রবাহের কারনে ঠান্ডায় দুর্ভোগে রয়েছেন মানুষগুলো। কিন্তু এখন পর্যন্ত বেসরকারি কোন সংস্থা শীতবস্ত্র বিতরণে এগিয়ে আসেননি।

ধানশাইল ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, আমার এলাকায় গরীব, দুস্থ পরিবারের সংখ্যা প্রায় ২ হাজারের উপরে। আর সেখানে আমাকে বিতরণের জন্যে দেয়া হয়েছে ২শ’ কম্বল।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা অতিরিক্ত দায়িত্ব মো. রাকিবুল হাসান বলেন, সরকারি বরাদ্দকৃত ইতিমধ্যে শীতার্থদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!