You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

ঝিনাইগাতীতে কাঁটাখালি-রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধ দিবস পালিত

যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে শেরপুরে কাটাখালি-রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধ দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে আজ শুক্রবার দুপুরে স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত শহীদ নাজমুল আহসান ও তার সহযোদ্ধা এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসন, মুক্তিসংগ্রাম জাদুঘর, শেরপুর সদর উপজেলা নেটওয়ার্ক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আমরা ১৮ বছর’ এসব অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

শেরপুর-ঝিনাইগাতী সড়কের কাটাখালি সেতুতে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আব্দুস সামাদ। অনুষ্ঠানের শুরুতে কাটাখালি-রাঙামাটিয়া যুদ্ধে নিহত শহীদদের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আব্দুস সামাদসহ জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এ সময় সচিব সামাদ কাটাখালি ও রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধের শহীদদের নাম ও ঘটনার বর্ণনা সম্বলিত স্মৃতিফলক উন্মোচন করেন।

পরে জেলা প্রশাসক মল্লিক আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন নৌপরিবহন সচিব আব্দুস সামাদ, পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম, মুক্তিসংগ্রাম জাদুঘরের পরিচালক উৎপল কান্তি ধর, মুক্তিসংগ্রাম জাদুঘর, শেরপুর সদর উপজেলা নেটওয়ার্কের সভাপতি রাজিয়া সামাদ, নাগরিক সংগঠন জনউদ্যোগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, মুক্তিযোদ্ধা আয়শা খাতুনের ছেলে আশরাফ আলী, শহীদ নাজমুল আহসানের ছোট ভাই সদরুল আহসান, সহযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল গনি, নালিতাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল হালিম প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের ৫ জুলাই রাতে শেরপুর-ঝিনাইগাতী সড়কের কাটাখালি সেতুতে অপারেশনশেষে ৬ জুলাই ঝিনাইগাতীর রাঙ্গামাটিয়া গ্রামে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে পাক হানাদার বাহিনীর সম্মুখ যুদ্ধ হয়। এতে কোম্পানী কমান্ডার নাজমুল আহসান ও তাঁর পরিবারের দুই সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মোফাজ্জল হোসেন ও মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেনসহ ১২ জন শহীদ হন। এ সময় হানাদার বাহিনী অর্ধ-শতাধিক ঘরবাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দেয় এবং নিরীহ নারীদের ধর্ষণ করে। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে ‘অপারেশন কাটাখালি’ ও ‘রাঙ্গামাটিয়া যুদ্ধ’ এক অনন্য স্থান দখল করে আছে। প্রতি বছর ৬ জুলাই এ দিবসটি পালন করা হয়।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!