ঝিনাইগাতীতে কবর থেকে কঙ্কাল চুরি

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে কবর থেকে চারটি কঙ্কাল চুরি করে নিয়ে গেছে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা। গত রোববার দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার ঘাগড়া মারুয়াপাড়া ও ঘাগড়া প্রধানপাড়া পারিবারিক কবর স্থান থেকে এসব কঙ্কাল চুরি করা হয়। যাদের কঙ্কাল চুরি করা হয়েছে সেই মৃত ব্যক্তিরা হলেন উপজেলার হাতিবান্ধা ইউনিয়নের ঘাগড়া মারুয়াপাড়া গ্রামের মৃত কফিল উদ্দিন (৯০), একই গ্রামের মৃত চান মিয়া (৬২) ও তাঁর স্ত্রী মৃত আমেনা বেগম (৬০) এবং ঘাগড়া প্রধানপাড়া গ্রামের মৃত সিরাজ মিয়া (৬৫)।

মৃতব্যক্তিদের পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ছয় মাস আগে কফিল উদ্দিন, দেড় মাস আগে চান মিয়া, চার মাস আগে আমেনা এবং এক বছর আগে সিরাজ মিয়া মারা যান। মৃত্যুর পর তাদের লাশ ঘাগড়া মারুয়াপাড়া ও প্রধানপাড়া গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। সোমবার ভোরে মৃতব্যাক্তিদের আত্মীয়-স্বজন দেখতে পান কবরস্থানের কয়েকটি কবর খোঁড়া হয়েছে এবং কবর থেকে দুর্গন্ধ বের হচ্ছে। এসময় তারা কবরের কাছে গিয়ে দেখতে পান যে, উপরোক্ত ব্যক্তিদের লাশ বা কঙ্কাল কবরের ভেতরে নেই। এরপর বিষয়টি লোকমুখে ছড়িয়ে পড়ে এবং এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

মৃত চান মিয়ার ভাতিজা জিয়াউর রহমান বলেন, রোববার দিবাগত গভীর রাতের কোন এক সময় অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা কবর থেকে এসব কঙ্কাল চুরি করে নিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে থানায় সংবাদ দেওয়া হয়েছে।

ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। এর পরেই ঘটনাস্থলে পুলিশের কর্মকর্তা পাঠানো হয়েছে। তাদের নিকট থেকে প্রতিবেদন পাওয়ার পর এ ব্যাপারে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের