You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

ঝিনাইগাতীতে এলজিইডি’র অধীনে ৯৬ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে গত ৯ বছরে প্রায় ৯৬ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ করেছে। সরকারের রুপকল্প ২০২১ বাস্তবায়নে এলজিইডি এসব উন্নয়ন কাজ করছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম। শেরপুর টাইমস ডটকম’র বিশেষ আয়োজন উন্নয়নে শেরপুরের তৃতীয় পর্বে আজ থাকছে এলজিইডি ৯ বছরে ৯৬ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ নিয়ে শেরপুর টাইমস’র ঝিনাইগাতী প্রতিনিধি জাহিদুল হক মনিরের বিশেষ প্রতিবেদন।

উপজেলা এলজিইডি সূত্রে জানা গেছে, এ উপজেলায় ২০০৯ থেকে ২০১৮ অর্থ বছরে প্রায় ৯৬ কোটি টাকা ব্যয়ে বিভিন্ন প্রকল্পের আওতায় ৬২ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ ও পাকাকরণ করা , ১০০ মিটারের বড় ২টি ব্রীজ নির্মাণ, ২০টি ব্রীজ ও কালভার্ট, রাবার ড্যাম নির্মাণ করা হয়েছে ১টি, গ্রোথ সেন্টার ১টি, ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ৩টি, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ১টি, অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের ২টি বাড়ি নির্মাণ, আদিবাসীদের জন্য ১টি অবকাঠামো নির্মাণ, ১৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয় উন্নয়ন এবং ১০কিলোমিটার বৃক্ষরোপণসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করেছে।
আর এসব উন্নয়নের ছোঁয়ায় গারো পাহাড় এলাকা হিসেবে পরিচিত উপজেলাটির দৃশ্য অনেকটা পাল্টে গেছে। গড়ে উঠেছে শক্তিশালী যোগাযোগ নেটওর্য়াক। এতে স্থানীয় সাধারণ পথচারী, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী, কৃষক থেকে শুরু করে সব শ্রেণীর মানুষের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘব হয়েছে। ফলে জনমনে এসছে স্বস্তি।

উপজেলার দুপুরিয়া গ্রামের কৃষক মোজাম্মেল ও আবু বক্করসহ অনেকেই জানান, সেতু নির্মাণের ফলে তাদের উৎপাদিত কৃষিপণ্য বাজারে নিয়ে বিক্রি করতে পারছেন। ফলে সঠিক মূল্য পাচ্ছেন। পাশা-পাশি তাদের সন্তানরা স্কুল-কলেজে খুব সহজে যাতায়াত করতে পাচ্ছে। ফলে জনসাধারণের ভাগ্য বদলে গেছে।

উপজেলা প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, গত ৯ বছরে অনেক উন্নয়ন কাজকর্ম বাস্তবায়ন করা হয়েছে এবং অনেক উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!