You dont have javascript enabled! Please download Google Chrome!

জামালপুরের সব খবর

 

জামালপুরে  এসএসসি পরীক্ষার্থীর সন্তান প্রসব

জামালপুর সংবাদদাতা॥ জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে এসএসসি পরীক্ষা স্বর্ণালী আক্তার ছেলে সন্তান প্রসব করেছে। রোববার গণিত পরীক্ষা চলাকালে রিয়াজ উদ্দিন তালুকদার উচ্চ বিদ্যালয় ভ্যানু কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।
বিদ্যালয় সুত্র জানায়, পোগলদিঘা ইউনিয়নের বগারপাড় গ্রামের জহুরুল ইসলামের মেয়ে স্বর্ণালী আক্তার বগারপাড় উচ্চ বিদ্যালয়ের মানবিক শাখার এসএসসি পরীক্ষার্থী। রোল নং ৪২৯৩৭৩। রোববার ছিল গণিত পরীক্ষার দিন। পরিক্ষার হলে প্রসব ব্যথা অনুভব হয়। দ্রুত তাকে কেন্দ্রের অন্য একটি কক্ষে নেয়ার পরপরই সে ছেলে সন্তান প্রসব করে। মা ও শিশুটি সুস্থ থাকায় এরপর সে স্বাভাবিকভাবেই পরীক্ষা চলমান রাখে। স্বর্ণালী আক্তার আলাদা কক্ষে পরীক্ষা দিচ্ছে। পরে জানাগেছে, ছাত্রীটি বিবাহিত ছিল।#

তেজগাঁও থেকে নিখোঁজ শিশু সরিষাবাড়ী উদ্ধার

জামালপুর সংবাদদাতা॥ রাজধানীর তেজগাঁও রেলওয়ে কলোনি থেকে রমজান আলী (৬) নামে এক শিশু নিখোঁজের তিনদিন পর সরিষাবাড়ী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সন্ধ্যায় পিতা আনিছুর রহমানের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পুলিশ ও পারিবারিক সুত্র জানায়, উপজেলার মহাদান ইউনিয়নের সেঙ্গুয়া বাজারে শনিবার দুপুরে অপরিচিত শিশু রমজান আলীকে ঘুরাফেরা করতে দেখে স্থানীয়রা। বড়শরা গ্রামের গ্রামের শহিদুল মিয়ার ছেলে শাহিন মিয়া শিশুটির পরিচয় জানতে চায়। সে সময় শিশুটি তার বাবার নাম আনিছ, মায়ের নাম শাহানা, বোন কাকুলী ও কুহেলী এবং ভাইয়ের নাম হৃদয় জানায়। পরে শাহিন মিয়া সরিষাবাড়ী থানা পুলিশের হেফাজতে দেন শিশুটিকে। ঘটনাটি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত হলে শিশুর পরিবার খবর পেয়ে থানা পুলিশের সাথে যোগাযোগ করে। শিশর বাবা আনিছুর রহমান তেজগাঁও থেকে সরিষাবাড়ীতে এসে সোমবার সন্ধ্যায় ছেলেকে বুঝে নেন।
সংবাদপত্রে খবর পেয়ে আমার ছেলের সন্ধান পাই।#

সরিষাবাড়ীতে সেঙ্গুয়া স্কুলের শিক্ষকক বরখাস্ত

জামালপুর সংবাদদাতা
॥ জামালপুরের সরিষাবাড়ী সেঙ্গুয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল¬াহেল বাকীকে সাময়িক বরখাস্ত করেছেন বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ। ৮ ফেব্রুয়ারি ম্যানেজিং কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রধান শিক্ষক স্বাক্ষরিত পত্রে এ বরখাস্ত করা হয়।
সুত্র জানায়, মহাদান ইউনিয়নের সেঙ্গুয়া উচ্চ বিদ্যালয়টি ১৯৭১ সালে স্থাপনের পর বেশ কিছুদিন পূর্বে প্রধান শিক্ষকের পদটি শূন্য হলে সহকারী শিক্ষক আব্দুল্লাহেল বাকীকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেওয়া হয়। আর ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নিজেকে প্রধান শিক্ষক দাবি করে নিয়োগ বানিজ্যসহ নানা অনিয়ম করেন। পরবর্তীতে প্রধান শিক্ষক পদে আবুল কালাম আজাদ নামে একজনকে নিয়োগ দেওয়া হয়। এদিকে সহকারী শিক্ষক আব্দুল¬াহেল বাকী গত বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে বিদ্যালয়ে বন্ধ করে দিয়ে উদ্দেশ্যপূর্ণ একটি মামলা করেন। কিন্তু ম্যানেজিং কমিটি তার বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের অর্থ আত্মসাৎ, প্রাতিষ্ঠানিক শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও পেশাগত অসদাচরণের পর পর ৩টি নোটিশ দেয়। আব্দুল¬াহেল বাকী নোটিশের কোন সদুত্তর দিতে না পারায় ৮ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) ম্যানেজিং কমিটির এক সভায় প্রধান শিক্ষক স্বাক্ষরিত পত্রে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।#

 

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের

error: Alert: কপি হবেনা যে !!