ওসি বিপ্লবের হস্তক্ষেপে নতুন জীবনে মাদ্রাসা ছাত্রী

শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব বিশ্বাসের হস্তক্ষেপ ও সহযোগিতায় বাল্যবিবাহের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে এক মাদ্রাসা ছাত্রী। আজ বিকেলে উপজেলার ঝিনাইগাতী গ্রামে এ বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়। ওই মাদ্রাসা ছাত্রী স্থানীয় দারুল ইসলাম দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ বিকেলে গাজীপুর কোনাবাড়ী এলাকার শেখ জালালের ছেলে জেরিনের(২৫) সঙ্গে ওই শিক্ষার্থীর বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল। বাল্যবিবাহের সংবাদ পেয়ে ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীর বাড়িতে গিয়ে বিয়ের আয়োজন দেখতে পান।

পরে তিনি শিক্ষার্থীর পরিবার ও বরপক্ষের লোকজনকে বুঝিয়ে এ বিয়ে বন্ধ করতে বলেন। অন্যথায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান। এতে দুই পক্ষের অভিভাবকেরা এই বাল্যবিবাহ বন্ধ করেন।

এব্যাপারে ওসি  বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, বাল্যবিবাহের খবর পেয়ে ওই মাদ্রাসা ছাত্রীর বাড়িতে গিয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। একই সময় শিক্ষার্থী ও বরপক্ষের পরিবারের কাছ থেকে প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেয়ার অঙ্গীকারনামাও নেওয়া হয়েছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের