নালিতাবাড়ীর তরুণ গীতিকার হুমায়ুন কবির

গান রচনা করে আবার সেই গান নিজের কন্ঠে গেয়ে যিনি ইতোমধ্যেই সংগীত পিপাসু মানুষের হৃদয়ে জায়গা দখল করে নিয়েছেন শেরপুরের নালিতাবাড়ীর সেই তরুণ গীতিকার, সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক হুমায়ুন কবির। ছোটবেলা থেকেই তিনি গান গাইতেন। গানের জগতে নাম লিখানো তার স্বপ্ন ছিল। আজ সেই স্বপ্ন পুরন হতে চলেছে। তাইতো তিনি গানের জগতে এগিয়ে চলছেন সমানতালে। তার এগিয়ে চলার গল্প নিয়ে সম্প্রতি তিনি শেরপুর টাইমস ডটকমের মুখোমুখি হয়েছিলেন। তার সাক্ষাতকারটি গ্রহন করেছেন শেরপুর টাইমস ডটকমের বার্তা সম্পাদক এম. সুরুজ্জামান। শেরপুর টাইমসের পাঠকদের জন্য তার সাক্ষাতকারটি তুলে ধরা হলো:

শেরপুর টাইমস: শেরপুর টাইমস ডটকমের পক্ষ থেকে আপনাকে স্বাগতম। কেমন আছেন ?

হুমায়ুন কবির: আলহামদুলিল্লাহ! আল্লাহপাক ভাল রেখেছেন।

Advertisements

শেরপুর টাইমস: আপনি কিভাবে গানের জগতে এলেন ?

হুমায়ুন কবির: আমি ছোটবেলা থেকেই গান করা পছন্দ করতাম। মাঝে মাঝে গুনগুন করে গান গাইতাম। আমার গান শুনে বড় ভাই মোশারফ আজমী ও আমার মামী আমাকে উৎসাহ দিতেন। ২০১০ সালে মোশারফ আজমী ভাই আমাকে নিয়ে ঢাকায় গেলেন। ঢাকার নাম করা দূরবীন ব্যান্ডের ভোকাল শহিদ ভাই, কাজী শুভ ভাই, আইয়ুব ভাই ও আরফিন রুমীর সাথে আমাকে পরিচয় করিয়ে দিলেন। উনারা প্রথম দিন থেকেই আমাকে খুব কাছে টেনে নিলেন। তাদের সান্নিদ্যে আমি আস্তে আস্তে গান লিখতে শুরু করলাম। প্রথম প্রথম আমার খুব ভয় হতো আমি গান লিখতে পারছি কি না। আমার গান লিখা হচ্ছে কি না। তাদের দেখাতাম। তারা আমার লিখা গান দেখে উৎসাহ দিতেন।

শেরপুর টাইমস: কত সালে আপনার লিখা গান প্রকাশ পায় ?

হুমায়ুন কবির: ২০১২ সালে কাজী শুভ ভাই ও আরফিন রুমী ভাই সাদামাটা-২ এলবামের কাজ করছিলেন। তখন উনারা বললেন তুমি একটি গান লিখে দাও। তখন আমি সাদামাটা-২ এর সুপারহিট গান “যাহার লাগি হই বিভাগী সেইতো বুঝেনারে মন, জিবন যৌবন দিলাম সপি হইলো নাতো সে আপন।” একই এলবামের আরেকটি সুপারহিট গান লিখলাম “যারে ভাবি দিবানিশি সইগো তারে পাবো কি।” ওই বছর আমি নিজেও গাইলাম “ও প্রণো সোনা কাছে আসো না।” এই এলবামের তিনটি গানই খুব জনপ্রিয়তা পায়। আমার সব চেয়ে সুপারহিট গান হলো“ পাখিরা গান গায় গেয়ে যাক না।”

শেরপুর টাইমস: এরপর আর কোন এলবামের কাজ করেছেন ?

হুমায়ুন কবির: কাজী শুভ ভাইয়ের সাদামাটা-৩ এলবামে দুইটি গান লিখেছি। “দিওয়ানা ও ভালোবাসি বলব গানে গানে।” এই দুটি গানও সুপারহিট হয়েছে। এরপর আমার লিখা ও সুর করা গান “এখনোতো সোনা বন্ধু তোমার কথাই রাখি।” এছাড়াও প্রেম ছাড়াকি কোনো মানুষ বাঁচে।” এই গানগুলি আমিই নিজেই করেছি। কাজী শুভ ভাইয়ের শেষ প্রকাশিত এলবামে “দুঃখ বলি” সুপারহিট গানটি আমার লিখা ও সুর করা।

শেরপুর টাইমস: আপনার লিখা গান আর কোন শিল্পী গেয়েছে কি ?

হুমায়ুন কবির: আমি অনেক জনপ্রিয় শিল্পীর সাথে কাজ করছি। আমার লিখা গান জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী ফেরদৌস ওয়াহিদ ভাই সিনেমার গান গেয়েছে। শহীদ ভাই ও স্বরলিপির জনপ্রিয় গান “এতো দিন কোথায় ছিলে।” ঐশির প্রণো বন্ধুরে, ও আইয়ুব শাহরিয়ারের “ভালবাসা ভুলা দায়” এই গান দুটি আমারই লিখা। এছাড়া কোজআপ ওয়ানের শিল্পী শশীর সাথে আমি নিজে গান গেয়েছি “প্রেমের সাধনা” গানটি।

শেরপুর টাইমস: ঈদুল ফিতরের কোন চমক ছিল কি ?

হুমায়ুন কবির: হ্যাঁ সদ্য প্রকাশিত হলো একক এলবাম “কি যাদু করেছ”। এই এলবামে আমার গান রয়েছে চারটি। আমার সাথে গানের কন্ঠ দিয়েছেন স্বরলিপী, লাবন্য ও আনিজা। এই এলবামটি প্রকাশিত হয়েছে সিডি চয়েজ মিউজিক কোম্পানী থেকে। আপনারা সবাই গানগুলো শুনবেন আশা করি ভাল লাগবে।

শেরপুর টাইমস: এ যাবত আপনি কতগুলি গান লিখেছেন ?

হুমায়ুন কবির: প্রায় তিন শতাধিক গান লিখেছি আমি। এরমধ্যে ২২টি গান প্রকাশ হয়েছে। আরো বেশ কয়েকটির কাজ চলছে।
শেরপুর টাইমস: গান নিয়ে আপনার ভবিষ্যত পরিকল্পনা কি ?

হুমায়ুন কবির: গান নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন। আমি গানকে হৃদয় দিয়ে ভালবাসি, আমার ভক্তশ্রোতাদের দোয়ায় আমি একজন সুনামধন্য গীতিকার, সুরকার, শিল্পী ও সঙ্গিত পরিচালক হতে চাই।

শেরপুর টাইমস: বর্তমানে আপনি আর কি করেন ?

হুমায়ুন কবির: আমি ঢাকা কলেজে রাষ্ট্র বিজ্ঞানে অনার্স মাস্টারস করছি। মোহাম্মদ পুরে আমার নিজস্ব স্টুডিও আছে। সেখানেই গানের কম্পোজ করি।

শেরপুর টাইমস: আপনার ব্যক্তিগত পরিচয় কি ?

হুমায়ুন কবির: আমার জন্ম ১৯৮৬ সালে, পিতার নাম: আব্দুল কাদির, মাতার নাম: শিরিনা বেগম। বাসা শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার আড়াই আনী বাজারের এস আর অফিস সংলগ্ন। আমরা চার ভাইবোন। বড় ভাই মোশারফ আজমী একজন সঙ্গীত পরিচালক।

শেরপুর টাইমস: আপনি কি বিয়ে করেছেন ?

হুমায়ুন কবি: হা হা হা….এখনো করিনি। তবে আগে পরোতো বিয়ে করতেই হবে। আল্লাহপাকের যখন হুকুম হবে। তখন অবশ্যই বিয়ে করবো।

শেরপুর টাইমস: আপনার ভক্তশ্রোতা ও আপনার পছন্দের গীতিকার সম্পর্কে কিছু বলুন।

হুমায়ুন কবির: আমি বেশির ভাগ ফোক গান করি। আমার পছন্দের গীতিকার হলো, আহম্মেদ ইমতিয়াজ বুলবুল ও প্রয়াত বাউল শিল্পী ও গীতিকার শাহ আব্দুল করিম। আমার জন্য আপনার প্রাণ খুলে দোয়া করবেন। আমি যেন সঙ্গীত জগতে আরো এগিয়ে যেতে পারি। সঙ্গীত জগতে যাতে কিছু অবদান রাখতে পারি। আমার প্রকাশিত গানগুলি আপনারা শুনবেন আশা করি আপনাদের ভাল লাগবে।

শেরপুর টাইমস: আমাদের শেরপুর শেরপুর টাইমস ডটকমের পাঠকের জন্য একটি গান শুনান।

হুমায়ুন কবির: “মনের সাথে মন মিলাইয়া দুঃখ পাইলাম জিবনে…দুঃখ বলি কারসনে…

শেরপুর টাইমস: শেরপুর টাইমস ডটকমে আসার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

হুমায়ুন কবির: আমাকে সুযোগ করে দেয়ার জন্য শেরপুর টাইমস ডটকম পরিবারের সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের